২৮৮৬

পরিচ্ছেদঃ ১২৬. দাদীর মিরাছ সম্পর্কে।

২৮৮৬. মুহাম্মদ ইবন কাছীর(রহঃ) .... ’ইমরান ইবন হুসাইন (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, একদা জনৈক ব্যক্তি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর নিকট হাযির হয়ে বলেঃ আমার ছেলের ছেলে (পৌত্র) ইনতিকাল করেছে, এখন আমি তার মীরাছ থেকে কিরূপ অংশ পাব? তিনি বলেনঃ তোমার অংশ হবে এক-ষষ্ঠমাংশ। অতঃপর সে লোক যখন ফিরে যাচ্ছিল, তখন তিনি ডাকেন এবং বলেনঃ তুমি এক-ষষ্ঠমাংশ পাবে।

আবূ কাতাদা (রাঃ) বলেনঃ তারা (সাহাবীরা) জানত না যে দাদা কোন সময় এক-ষষ্ঠমাংশ পায়। আবূ কাতাদা (রাঃ) আরো বলেনঃ দাদার প্রাপ্ত সর্বনিম্ন মীরাছের অংশ হলো এক-ষষ্ঠমাংশ।

باب مَا جَاءَ فِي مِيرَاثِ الْجَدِّ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ كَثِيرٍ، أَخْبَرَنَا هَمَّامٌ، عَنْ قَتَادَةَ، عَنِ الْحَسَنِ، عَنْ عِمْرَانَ بْنِ حُصَيْنٍ، أَنَّ رَجُلاً، أَتَى النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم فَقَالَ إِنَّ ابْنَ ابْنِي مَاتَ فَمَا لِي مِنْ مِيرَاثِهِ فَقَالَ ‏"‏ لَكَ السُّدُسُ ‏"‏ ‏.‏ فَلَمَّا أَدْبَرَ دَعَاهُ فَقَالَ ‏"‏ لَكَ سُدُسٌ آخَرُ ‏"‏ ‏.‏ فَلَمَّا أَدْبَرَ دَعَاهُ فَقَالَ ‏"‏ إِنَّ السُّدُسَ الآخَرَ طُعْمَةٌ ‏"‏ ‏.‏ قَالَ قَتَادَةُ فَلاَ يَدْرُونَ مَعَ أَىِّ شَىْءٍ وَرَّثَهُ ‏.‏ قَالَ قَتَادَةُ أَقَلُّ شَىْءٍ وَرِثَ الْجَدُّ السُّدُسَ ‏.‏

حدثنا محمد بن كثير، أخبرنا همام، عن قتادة، عن الحسن، عن عمران بن حصين، أن رجلا، أتى النبي صلى الله عليه وسلم فقال إن ابن ابني مات فما لي من ميراثه فقال ‏"‏ لك السدس ‏"‏ ‏.‏ فلما أدبر دعاه فقال ‏"‏ لك سدس آخر ‏"‏ ‏.‏ فلما أدبر دعاه فقال ‏"‏ إن السدس الآخر طعمة ‏"‏ ‏.‏ قال قتادة فلا يدرون مع أى شىء ورثه ‏.‏ قال قتادة أقل شىء ورث الجد السدس ‏.‏


Narrated Imran ibn Husayn:

A man came to the Prophet (ﷺ) and said: My son has died; what do I receive from his estate? He replied: You receive a sixth. When he turned away he called him and said: You receive another sixth. When he turned away, he called him and said: The other sixth is an allowance (beyond what is due).

Qatadah said: They (the Companions) did not know the heirs with whom he was given (a sixth). Qatadah said: The minimum share given to the grandfather was a sixth.


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সুনান আবূ দাউদ (ইসলামিক ফাউন্ডেশন)
১৩/ কিতাবুল ফারাইয (كتاب الفرائض)