১৫৬৭

পরিচ্ছেদঃ ১. দ্বিতীয় অনুচ্ছেদ - রোগী দেখা ও রোগের সাওয়াব

১৫৬৭-[৪৫] আবূ হুরায়রাহ্ (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ মু’মিন নারী-পুরুষের বিপদ-মুসীবাত লেগেই থাকে। এ বিপদ-মুসীবাত তার শারীরিক, তার ধন-সম্পদের, তার সন্তান-সন্ততির ব্যাপারে হতে পারে। আল্লাহর সাথে মিলিত হবার আগ পর্যন্তই তা চলতে থাকে। আর আল্লাহর সাথে তার মিলিত হবার পর তার ওপর গুনাহের কোন বোঝাই থাকে না। (তিরমিযী; মালিক (রহঃ) এরূপ বর্ণনা করেছেন। তিরমিযী বলেন, হাদীসটি হাসান ও সহীহ।)

وَعَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «لَا يَزَالُ الْبَلَاءُ بِالْمُؤْمِنِ أَوِ الْمُؤْمِنَةِ فِي نَفْسِهِ وَمَالِهِ وَوَلَدِهِ حَتَّى يَلْقَى اللَّهَ تَعَالَى وَمَا عَلَيْهِ مِنْ خَطِيئَةٍ» . رَوَاهُ التِّرْمِذِيُّ وَرَوَى مَالِكٌ نَحْوَهُ وَقَالَ التِّرْمِذِيُّ: هَذَا حَدِيثٌ حَسَنٌ صَحِيح

وعن أبي هريرة رضي الله عنه قال: قال رسول الله صلى الله عليه وسلم: «لا يزال البلاء بالمؤمن أو المؤمنة في نفسه وماله وولده حتى يلقى الله تعالى وما عليه من خطيئة» . رواه الترمذي وروى مالك نحوه وقال الترمذي: هذا حديث حسن صحيح

ব্যাখ্যা: রাযী বলেনঃ সম্ভবত আল্লাহ ইচ্ছা করেন এর মাধ্যমে (বান্দা) তার গুনাহগুলোকে মিটিয়ে দিতে যাতে তার আর কোন গুনাহ না থাকে অথবা হতে পারে আল্লাহ ইচ্ছা করেন এর মাধ্যমে তার প্রতিদান অর্জিত হোক তার সকল পাপের পরিমাপের বিনিময় অনুযায়ী। অতঃপর সে আল্লাহর সাথে সাক্ষাত করবে এমতাবস্থায় তার কোন গুনাহ থাকবে না আর বৃদ্ধি করা হবে তার পুণ্যের উপর আর এই সুসংবাদ ঐ ব্যক্তির জন্য যে ব্যক্তি মুসীবাতে ধৈর্য ধারণ করবে এবং প্রতিদানের প্রত্যাশা করবে। আর যে ব্যক্তি বিরক্ত প্রকাশ করবে এটা আল্লাহর নিয়তির উপর অসন্তোষ প্রকাশ করবে এজন্য সে গুনাহগার হবে।


হাদিসের মানঃ হাসান (Hasan)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
মিশকাতুল মাসাবীহ (মিশকাত)
পর্ব-৫: জানাযা (كتاب الجنائز)