সহীহ শামায়েলে তিরমিযী ৩১. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর পানীয় বস্তুর বিবরণ (باب ما جاء في صفة شراب رسول الله ﷺ)

পরিচ্ছেদঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ঠান্ডা মিষ্টি পানীয় অধিকতর পছন্দ করতেন :

১৫০. আয়েশা (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ঠাণ্ডা মিষ্টি পানীয় অধিকতর পছন্দ করতেন।[1]

حَدَّثَنَا ابْنُ أَبِي عُمَرَ ، قَالَ : حَدَّثَنَا سُفْيَانُ ، عَنْ مَعْمَرٍ ، عَنِ الزُّهْرِيِّ ، عَنْ عُرْوَةَ ، عَنْ عَائِشَةَ ، قَالَتْ : " كَانَ أَحَبَّ الشَّرَابِ إِلَى رَسُولِ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ , الْحُلْوُ الْبَارِدُ " .

حدثنا ابن أبي عمر ، قال : حدثنا سفيان ، عن معمر ، عن الزهري ، عن عروة ، عن عائشة ، قالت : " كان أحب الشراب إلى رسول الله صلى الله عليه وسلم , الحلو البارد " .


Aisha radiyallahu anha says, “The drink most liked by Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam was that which was sweet and cold.”

Apparently cold and sweet water is mentioned here. In the narration mentioned by Abu Dawood and others it is clearly stated, and there also may be a probability that sharbat of honey or nabeedh of dates are meant, as has been mentioned in the chapter on the cup of Sayyidina Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam. Sayyidina Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam did not pay much attention to food. Whatever was available was eaten, but sweet and cold water was given importance. Sweet water was brought for Sayyidina Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam from a place called Suqya, which is a few kilometres from Madinah. Sayyidina Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam also added the following du’aa in the words of Dawood alaihis salaam, that “O’ Allah grant me such love for You, which is more beloved to me than my life, wealth, wife, children, and cold water.”


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সহীহ শামায়েলে তিরমিযী
৩১. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর পানীয় বস্তুর বিবরণ (باب ما جاء في صفة شراب رسول الله ﷺ) 31. Description Of The Things Rasoolullah Drank

পরিচ্ছেদঃ

তিনি নিজে পান করে প্রথমে ডান পার্শ্বের ব্যক্তিকে দিতেন :

১৫১. ইবনে আব্বাস (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর সাথে আমি এবং খালিদ ইবনে ওয়ালীদ (রাঃ) একবার মায়মূনা (রাঃ) এর নিকট গেলাম। তিনি আমাদের জন্য একটি পাত্রে দুধ আনলেন। অতঃপর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তা হতে কিছু পান করলেন। সে সময় আমি ছিলাম তাঁর ডানে এবং খালিদ তাঁর বামে। তারপর তিনি আমাকে বললেন, এখন পান করার হক তোমার। তবে ইচ্ছে করলে তুমি খালিদকে তোমার উপর অগ্রাধিকার দিতে পার। এরপর ইবনে আব্বাস (রাঃ) বললেন, আমি আপনার উচ্ছিষ্টের ব্যাপারে কাউকে অগ্রাধিকার দিতে সম্মত নই। এরপর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, আল্লাহ যদি কাউকে কোন খাবার খাওয়ান তাহলে তাঁর বলা উচিত-

اللَّهُمَّ بَارِكْ لَنَا فِيهِ , وَأَطْعِمْنَا خَيْرًا مِنْهُ

“আল্ল-হুম্মা বা-রিক লানা- ফীহি ওয়া আত্ব’ইমনা- খয়রাম্ মিনহু”।

অর্থাৎ হে আল্লাহ! তুমি এতে বরকত দাও এবং আমাদেরকে এর চেয়েও বেশি সুস্বাদু খাবার দান করো।

আর যদি আল্লাহ কাউকে দুধ পান করান, তাহলে তাঁর বলা উচিত-

اللَّهُمَّ بَارِكْ لَنَا فِيهِ , وَزِدْنَا مِنْ

“আল্ল-হুম্মা বা-রিক লানা- ফীহি ওয়াযিদনা- মিনহু”।

অর্থাৎ হে আল্লাহ! তুমি এতে আমাদের জন্য বরকত দাও এবং আমাদেরকে এর চেয়েও বেশি দাও।

এরপর বর্ণনাকারী বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, দুধ ছাড়া এমন কোন বস্তু নেই, যা খাদ্য ও পানীয় উভয়ের কাজ দেয়।

حَدَّثَنَا أَحْمَدُ بْنُ مَنِيعٍ ، قَالَ : حَدَّثَنَا إِسْمَاعِيلُ بْنُ إِبْرَاهِيمَ ، قَالَ : حَدَّثَنَا عَلِيُّ بْنُ زَيْدٍ ، عَنْ عُمَرَ هُوَ ابْنُ أَبِي حَرْمَلَةَ ، عَنِ ابْنِ عَبَّاسٍ ، قَالَ : دَخَلْتُ مَعَ رَسُولِ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ , أَنَا , وَخَالِدُ بْنُ الْوَلِيدِ عَلَى مَيْمُونَةَ , فَجَاءَتْنَا بِإِنَاءٍ مِنْ لَبَنٍ ، فَشَرِبَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ , وَأَنَا عَلَى يَمِينِهِ , وَخَالِدٌ عَلَى شِمَالِهِ ، فَقَالَ لِي : " الشَّرْبَةُ لَكَ ، فَإِنْ شِئْتَ آثَرْتَ بِهَا خَالِدًا " ، فَقُلْتُ : مَا كُنْتُ لأُوثِرَ عَلَى سُؤْرِكَ أَحدًا ، ثُمَّ قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ : " مَنْ أَطْعَمَهُ اللَّهُ طَعَامًا ، فَلْيَقُلِ : اللَّهُمَّ بَارِكْ لَنَا فِيهِ , وَأَطْعِمْنَا خَيْرًا مِنْهُ ، وَمَنْ سَقَاهُ اللَّهُ عَزَّ وَجَلَّ لَبَنًا ، فَلْيَقُلِ : اللَّهُمَّ بَارِكْ لَنَا فِيهِ , وَزِدْنَا مِنْهُ " . ثُمَّ قَالَ : قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ : " لَيْسَ شَيْءٌ يُجْزِئُ مَكَانَ الطَّعَامِ وَالشَّرَابِ , غَيْرُ اللَّبَنِ "

حدثنا أحمد بن منيع ، قال : حدثنا إسماعيل بن إبراهيم ، قال : حدثنا علي بن زيد ، عن عمر هو ابن أبي حرملة ، عن ابن عباس ، قال : دخلت مع رسول الله صلى الله عليه وسلم , أنا , وخالد بن الوليد على ميمونة , فجاءتنا بإناء من لبن ، فشرب رسول الله صلى الله عليه وسلم , وأنا على يمينه , وخالد على شماله ، فقال لي : " الشربة لك ، فإن شئت آثرت بها خالدا " ، فقلت : ما كنت لأوثر على سؤرك أحدا ، ثم قال رسول الله صلى الله عليه وسلم : " من أطعمه الله طعاما ، فليقل : اللهم بارك لنا فيه , وأطعمنا خيرا منه ، ومن سقاه الله عز وجل لبنا ، فليقل : اللهم بارك لنا فيه , وزدنا منه " . ثم قال : قال رسول الله صلى الله عليه وسلم : " ليس شيء يجزئ مكان الطعام والشراب , غير اللبن "


Ibn Abbas radiyallahu anhu reports, “Khalid ibn Waleed and I both accompanied Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam to the house of Maymunah. (Ummul Mu’mineen, Maymunah radiyallahu anha was the maternal aunt of both). She served milk in a vessel. Rasoolullah
sallallahu alaihe wasallam drank from it. I was on his right and Khalid ibn Waleed on his left.
Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam said the right of drinking is now yours (as you are on the right). If you so wish you could give your right to Khalid. I replied that I would give no one preference from your left over. After that Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam said, Whenever
Allah feeds one something, this du’aa should be recited: Allahumma baarik lanaa fihi wa-at’imanaa khayram minhu

(Translation: O’ Allah grant us barakah in it, and feed us something better than it.)

Whenever Allah gives someone milk to drink one should read:
Allahumma baarik lanaa fihi wa-zidnaa minhu

(Translation: O’ Allah grant us barakah in it and increase it for us.)
Sayyidinaa Ibn Abbas radiyallahu anhu says that after having something Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam made du’aa for something better than it. And after drinking milk he taught to make du’aa for the increase of it, becuase Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam said, There is nothing that serves both as food and water excepting milk.”

‘এখন পান করার অধিকার তোমার রাসূলুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রাঃ) এর কাছে অনুমতি এজন্য চেয়েছিলেন যে, তখন তিনি ডানে বসা ছিলেন। আর খালেদ (রাঃ) ছিলেন বামে। আর বিভিন্ন হাদীসের বর্ণিত আছে- খাবার ডান দিক থেকে পরিবেশন করবে। এজন্য বড়কে সম্মান প্রদর্শনের জন্য রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছিলেন, তুমি ইচ্ছা করলে খালেদকে আগে খেতে দিতে পার।


Sayyidina Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam chose to give the milk first to Sayyidina Ibn Abbas radiyallahu anhu because he was sitting on the right, and Sayyidina Khalid ibn Waleed radiyallahu anhu on the left. As is mentioned in many ahaadith that the cup etc. should be passed from right to left, Sayyidina Rasoollullah sallallahu alaihe wasallam requested the giving of preference to Sayyidina Khalid ibn Waleed radiyllahu anhu, as he was elder. It was also intended to educate Sayyidina Ibn Abbas radiyallahu anhu that, though it was his right, it is better to give an elder preference. But the love Sayyidina Ibn Abbas radiyallahu anhu had for Sayyidina Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam naturally made him not give up this right for the left over milk of Sayyidina Rasoolullah sallallahu alaihe wasallam.


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সহীহ শামায়েলে তিরমিযী
৩১. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর পানীয় বস্তুর বিবরণ (باب ما جاء في صفة شراب رسول الله ﷺ) 31. Description Of The Things Rasoolullah Drank
দেখানো হচ্ছেঃ থেকে ২ পর্যন্ত, সর্বমোট ২ টি রেকর্ডের মধ্য থেকে