আল-আদাবুল মুফরাদ কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২১- মনের মধ্যে সৃষ্ট কুমন্ত্রণা।

১২৯৬। আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। সাহাবীগণ বলেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমাদের মনের মধ্যে এমন কিছু চিন্তার উদ্রেক হয় যা সূর্য উদিত হওয়ার পরিধির মধ্যকার (মূল্যবান) সবকিছুর বিনিময়েও কথায় প্রকাশ করা আমরা মোটেও সমীচীন মনে করি না। তিনি জিজ্ঞেস করেনঃ তোমরা কি তা অনুভব করো? তারা বলেন, হাঁ। তিনি বলেনঃ এটিই ঈমানের সুস্পষ্ট পরিচয়। (মুসলিম, আবু দাউদ, ইবনে হিব্বান)

بَابُ الْوَسْوَسَةِ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ سَلاَمٍ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا عَبْدَةُ، عَنْ مُحَمَّدِ بْنِ عَمْرٍو، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو سَلَمَةَ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ‏:‏ قَالُوا‏:‏ يَا رَسُولَ اللهِ، إِنَّا نَجِدُ فِي أَنْفُسِنَا شَيْئًا مَا نُحِبُّ أَنْ نَتَكَلَّمَ بِهِ وَإِنَّ لَنَا مَا طَلَعَتْ عَلَيْهِ الشَّمْسُ، قَالَ‏:‏ أَوَ قَدْ وَجَدْتُمْ ذَلِكَ‏؟‏ قَالُوا‏:‏ نَعَمْ، قَالَ‏:‏ ذَاكَ صَرِيحُ الإيمَانِ‏.‏

حدثنا محمد بن سلام، قال‏:‏ أخبرنا عبدة، عن محمد بن عمرو، قال‏:‏ حدثنا أبو سلمة، عن أبي هريرة‏:‏ قالوا‏:‏ يا رسول الله، إنا نجد في أنفسنا شيئا ما نحب أن نتكلم به وإن لنا ما طلعت عليه الشمس، قال‏:‏ أو قد وجدتم ذلك‏؟‏ قالوا‏:‏ نعم، قال‏:‏ ذاك صريح الإيمان‏.‏


Abu Hurayra related, "Some people said, 'Messenger of Allah, we feel in ourselves something which we do not want to speak about and we have been in that state since sunrise.' He said, 'Have you really felt like that?' 'Yes,' they said. He said, 'That is clear belief.'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২১- মনের মধ্যে সৃষ্ট কুমন্ত্রণা।

১২৯৭। শাহর ইবনে হাওশাব (রহঃ) বলেন, আমি ও আমার মামা আয়শা (রাঃ)-র নিকট উপস্থিত হলাম। মামা বলেন, আমাদের কারো মনের মধ্যে এমন কিছুর উদ্রেক হয়, সে তা ব্যক্ত করলে তার আখেরাত ধ্বংস হয়ে যায় এবং তা প্রকাশ পেলে সেজন্য তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হবে। রাবী বলেন, আয়েশা (রাঃ) তিনবার “আল্লাহু আকবার” ধ্বনি করার পর বলেন, এই বিষয়ে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল। তিনি বলেছেনঃ তোমাদের কারো অন্তরে তা অনুভব করলে সে তিনবার ‘আল্লাহু আকবার’ বলবে। মুমিন ব্যক্তিই এটা অনুভব করে থাকে।

بَابُ الْوَسْوَسَةِ

وَعَنْ جَرِيرٍ، عَنْ لَيْثٍ، عَنْ شَهْرِ بْنِ حَوْشَبٍ قَالَ‏:‏ دَخَلْتُ أَنَا وَخَالِي عَلَى عَائِشَةَ، فَقَالَ‏:‏ إِنَّ أَحَدَنَا يَعْرُضُ فِي صَدْرِهِ مَا لَوْ تَكَلَّمَ بِهِ ذَهَبَتْ آخِرَتُهُ، وَلَوْ ظَهَرَ لَقُتِلَ بِهِ، قَالَ‏:‏ فَكَبَّرَتْ ثَلاَثًا، ثُمَّ قَالَتْ‏:‏ سُئِلَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم عَنْ ذَلِكَ، فَقَالَ‏:‏ إِذَا كَانَ ذَلِكَ مِنْ أَحَدِكُمْ فَلْيُكَبِّرْ ثَلاَثًا، فَإِنَّهُ لَنْ يُحِسَّ ذَلِكَ إِلا مُؤْمِنٌ‏.‏

وعن جرير، عن ليث، عن شهر بن حوشب قال‏:‏ دخلت أنا وخالي على عائشة، فقال‏:‏ إن أحدنا يعرض في صدره ما لو تكلم به ذهبت آخرته، ولو ظهر لقتل به، قال‏:‏ فكبرت ثلاثا، ثم قالت‏:‏ سئل رسول الله صلى الله عليه وسلم عن ذلك، فقال‏:‏ إذا كان ذلك من أحدكم فليكبر ثلاثا، فإنه لن يحس ذلك إلا مؤمن‏.‏


Shahr ibn Hawshab said, "I and my maternal aunt visited 'A'isha and said, 'Sometimes something occurs to one of us such that, if he had spoken about it, that would have been the end of his hopes for the Next World. If it were to be revealed, he would be killed for it.' She said the takbir three times and then said, 'The Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, was asked about that and said, "If that happens to one of you, he should say the takbir three times. Only a believer feels that.'"


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২১- মনের মধ্যে সৃষ্ট কুমন্ত্রণা।

১২৯৮। আনাস ইবনে মালেক (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ যা হয়নি সে সম্পর্কে লোকে অনবরত জিজ্ঞেস করতে থাকবে। শেষে সে বলবে, সবকিছুর সৃষ্টিকর্তা হলেন আল্লাহ। তবে আল্লাহকে কে সৃষ্টি করেছে? (বুখারী, মুসলিম)

بَابُ الْوَسْوَسَةِ

وَعَنْ عُقْبَةَ بْنِ خَالِدٍ السَّكُونِيِّ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو سَعْدٍ سَعِيدُ بْنُ مَرْزُبَانَ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ أَنَسَ بْنَ مَالِكٍ يَقُولُ‏:‏ قَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم‏:‏ لَنْ يَبْرَحَ النَّاسُ يَسْأَلُونَ عَمَّا لَمْ يَكُنْ، حَتَّى يَقُولُوا‏:‏ اللَّهُ خَالِقُ كُلِّ شَيْءٍ، فَمَنْ خَلَقَ اللَّهَ‏.‏

وعن عقبة بن خالد السكوني، قال‏:‏ حدثنا أبو سعد سعيد بن مرزبان قال‏:‏ سمعت أنس بن مالك يقول‏:‏ قال رسول الله صلى الله عليه وسلم‏:‏ لن يبرح الناس يسألون عما لم يكن، حتى يقولوا‏:‏ الله خالق كل شيء، فمن خلق الله‏.‏


Anas ibn Malik said, "The Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, 'People will continue to ask about things that do not exist to such an extent that they will say, "Allah created everything, so who created Allah?"'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২২- অলীক ধারণা-অনুমান।

১২৯৯। আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ ধারণা-অনুমান সম্পর্কে তোমরা সাবধান হও। কারণ অলীক ধারণা পোষণ সবচেয়ে বড় মিথ্যা। তোমরা পরস্পর গোয়েন্দাগিরি করো না, ঝগড়া-বিবাদ করো না, অসাক্ষাতে দোষচর্চা করো না, হিংসা ও ঘৃণা-বিদ্বেষ পোষণ করো না। আল্লাহর বান্দাগণ! সকলে ভাই ভাই হয়ে যাও। (বুখারী, মুসলিম, তিরমিযী, ইবনে মাজাহ, আহমাদ, ইবনে হিব্বান)

بَابُ الظَّنِّ

حَدَّثَنَا إِسْمَاعِيلُ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي مَالِكٌ، عَنْ أَبِي الزِّنَادِ، عَنِ الأَعْرَجِ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ، أَنَّ رَسُولَ اللهِ صلى الله عليه وسلم قَالَ‏:‏ إِيَّاكُمْ وَ الظَّنَّ، فَإِنَّ الظَّنَّ أَكْذَبُ الْحَدِيثِ، وَلاَ تَجَسَّسُوا، وَلاَ تَنَافَسُوا، وَلاَ تَدَابَرُوا، وَلاَ تَحَاسَدُوا، وَلاَ تَبَاغَضُوا، وَكُونُوا عِبَادَ اللهِ إِخْوَانًا‏.‏

حدثنا إسماعيل قال‏:‏ حدثني مالك، عن أبي الزناد، عن الأعرج، عن أبي هريرة، أن رسول الله صلى الله عليه وسلم قال‏:‏ إياكم و الظن، فإن الظن أكذب الحديث، ولا تجسسوا، ولا تنافسوا، ولا تدابروا، ولا تحاسدوا، ولا تباغضوا، وكونوا عباد الله إخوانا‏.‏


Abu Hurayra reported that the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, "Beware of suspicion. Suspicion is the worst type of lie. Do not spy. Do not fight one another. Do not try to ensnare one another (in sales). Do not envy each other. Do not hate one another. Be slaves of Allah and brothers."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২২- অলীক ধারণা-অনুমান।

১৩০০। আনাস (রাঃ) বলেন, একদা নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাঁর কোন এক স্ত্রীর সাথে ছিলেন। তখন তাঁর নিকট দিয়ে এক ব্যক্তি অতিক্রম করলো। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাকে ডেকে বলেনঃ হে অমুক! ইনি আমার স্ত্রী অমুক। সে বললো, আমি হয়তো কারো সম্পর্কে ধারণা-অনুমান করতে পারি, কিন্তু আপনার সম্পর্কে কখনো ধারণা-অনুমানে লিপ্ত হই না। তিনি বলেনঃ শয়তান রক্তপ্রবাহের মত মানুষের ভেতরে বিচরণ করে। (আবু দাউদ)

بَابُ الظَّنِّ

حَدَّثَنَا مُوسَى بْنُ إِسْمَاعِيلَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا حَمَّادُ بْنُ سَلَمَةَ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا ثَابِتٌ، عَنْ أَنَسٍ قَالَ‏:‏ بَيْنَمَا النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم مَعَ امْرَأَةٍ مِنْ نِسَائِهِ، إِذْ مَرَّ بِهِ رَجُلٌ، فَدَعَاهُ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم فَقَالَ‏:‏ يَا فُلاَنُ، إِنَّ هَذِهِ زَوْجَتِي فُلاَنَةٌ، قَالَ‏:‏ مَنْ كُنْتُ أَظُنُّ بِهِ فَلَمْ أَكُنْ أَظُنُّ بِكَ، قَالَ‏:‏ إِنَّ الشَّيْطَانَ يَجْرِي مِنِ ابْنِ آدَمَ مَجْرَى الدَّمِ‏.‏

حدثنا موسى بن إسماعيل، قال‏:‏ حدثنا حماد بن سلمة، قال‏:‏ أخبرنا ثابت، عن أنس قال‏:‏ بينما النبي صلى الله عليه وسلم مع امرأة من نسائه، إذ مر به رجل، فدعاه النبي صلى الله عليه وسلم فقال‏:‏ يا فلان، إن هذه زوجتي فلانة، قال‏:‏ من كنت أظن به فلم أكن أظن بك، قال‏:‏ إن الشيطان يجري من ابن آدم مجرى الدم‏.‏


Anas said, "While the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, was with one of his wives, a man passed by and the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, called him and said, 'So-and-so, this is my wife so-and-so.' The man said, 'Whoever I might suspect, I would not suspect you!' The Prophet said, 'Shaytan flows in the son of Adam like blood flows.'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২২- অলীক ধারণা-অনুমান।

১৩০১। আবদুল্লাহ (রাঃ) বলেন, যার জিনিস চুরি হয়ে যায় সে ধারণা-অনুমান করতে করতে চোরের চেয়েও অগ্রসর হয়ে যায়।

بَابُ الظَّنِّ

حَدَّثَنَا يُوسُفُ بْنُ يَعْقُوبَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا يَحْيَى بْنُ سَعِيدٍ أَخُو عُبَيْدٍ الْقُرَشِيِّ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا الأَعْمَشُ، عَنْ أَبِي وَائِلٍ، عَنْ عَبْدِ اللهِ قَالَ‏:‏ مَا يَزَالُ الْمَسْرُوقُ مِنْهُ يَتَظَنَّى حَتَّى يَصِيرَ أَعْظَمَ مِنَ السَّارِقِ‏.‏

حدثنا يوسف بن يعقوب، قال‏:‏ حدثنا يحيى بن سعيد أخو عبيد القرشي، قال‏:‏ حدثنا الأعمش، عن أبي وائل، عن عبد الله قال‏:‏ ما يزال المسروق منه يتظنى حتى يصير أعظم من السارق‏.‏


'Abdullah said, "The person who has had something stolen from him continues to be suspicious until he is worse than the thief."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২২- অলীক ধারণা-অনুমান।

১৩০২। বিলাল ইবনে সাদ আল-আশআরী (রহঃ) থেকে বর্ণিত। মুআবিয়া (রাঃ) আবু দারদা (রাঃ)-কে লিখে পাঠানঃ দামিশকের দুষ্কৃতিকারীদের সম্পর্কে আমাকে লিখে পাঠান। তিনি বলেন, আমার সাথে দামিশকের দুষ্কৃতিকারীদের কি সম্পর্ক? আর আমি কোথায় বা তাদের চিনবো? তার পুত্র বিলাল বলেন, আমি তাদের সম্পর্কে লিখবো। অতএব তিনি তাদের তালিকা তৈরি করেন। আবু দারদা (রাঃ) জিজ্ঞেস করেন, কোথা থেকে তুমি জানতে পারলে? তুমি তাদের অন্তর্ভুক্ত হলেই কেবল দুষ্কৃতিকারী সম্পর্কে জানতে পারবে। অতএব তোমার নামটি দিয়ে (তালিকা) শুরু করো। তিনি তাদের নাম কখনো পাঠাননি।

بَابُ الظَّنِّ

حَدَّثَنَا مُوسَى بْنُ إِسْمَاعِيلَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا حَمَّادُ بْنُ سَلَمَةَ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا عَبْدُ اللهِ بْنُ عُثْمَانَ بْنِ عَبْدِ اللهِ بْنِ عَبْدِ الرَّحْمَنِ بْنِ سَمُرَةَ، عَنْ بِلاَلِ بْنِ سَعْدٍ الأَشْعَرِيِّ، أَنَّ مُعَاوِيَةَ كَتَبَ إِلَى أَبِي الدَّرْدَاءِ‏:‏ اكْتُبْ إِلَيَّ فُسَّاقَ دِمَشْقَ، فَقَالَ‏:‏ مَا لِي وَفُسَّاقُ دِمَشْقَ‏؟‏ وَمِنْ أَيْنَ أَعْرِفُهُمْ‏؟‏ فَقَالَ ابْنُهُ بِلاَلٌ‏:‏ أَنَا أَكْتُبُهُمْ، فَكَتَبَهُمْ، قَالَ‏:‏ مِنْ أَيْنَ عَلِمْتَ‏؟‏ مَا عَرَفْتَ أَنَّهُمْ فُسَّاقٌ إِلاَّ وَأَنْتَ مِنْهُمْ، ابْدَأْ بِنَفْسِكَ، وَلَمْ يُرْسِلْ بِأَسْمَائِهِمْ‏.‏

حدثنا موسى بن إسماعيل، قال‏:‏ حدثنا حماد بن سلمة، قال‏:‏ أخبرنا عبد الله بن عثمان بن عبد الله بن عبد الرحمن بن سمرة، عن بلال بن سعد الأشعري، أن معاوية كتب إلى أبي الدرداء‏:‏ اكتب إلي فساق دمشق، فقال‏:‏ ما لي وفساق دمشق‏؟‏ ومن أين أعرفهم‏؟‏ فقال ابنه بلال‏:‏ أنا أكتبهم، فكتبهم، قال‏:‏ من أين علمت‏؟‏ ما عرفت أنهم فساق إلا وأنت منهم، ابدأ بنفسك، ولم يرسل بأسمائهم‏.‏


Bilal ibn Sa'd al-Ash'ari related that Mu'awiya wrote to Abu Dharr, "Write down for me the deviants of Damascus." Abu Dharr said, "What do I have to do with the deviants of Damascus and how would I know them?" His son Bilal said, "I will write them," so he wrote them. Abu Dharr said, "How do you know? You would only know that they are deviants if you were one of them. Begin with yourself and do not send their names."


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৩- ক্রীতদাসী বা স্ত্রী তার স্বামীর মাথার চুল কামাতে পারে।

১৩০৩। সুকাইন ইবনে আবদুল আযীয ইবনে কায়েস (রহঃ) থেকে তার পিতার সূত্রে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি আবদুল্লাহ ইবনে উমার (রাঃ)-র নিকট উপস্থিত হলাম। তখন এক বাঁদী চুল কামাচ্ছিল। তিনি বলেন, চুন চামড়াকে নরম করে। (তাবারানী)

بَابُ حَلْقِ الْجَارِيَةِ وَالْمَرْأَةِ زَوْجَهَا

حَدَّثَنَا مُوسَى بْنُ إِسْمَاعِيلَ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي سُكَيْنُ بْنُ عَبْدِ الْعَزِيزِ بْنِ قَيْسٍ، عَنْ أَبِيهِ قَالَ‏:‏ دَخَلْتُ عَلَى عَبْدِ اللهِ بْنِ عُمَرَ، وَجَارِيَةٌ تَحْلِقُ عَنْهُ الشَّعْرَ، وَقَالَ‏:‏ النُّورَةُ تُرِقُّ الْجِلْدَ‏.‏

حدثنا موسى بن إسماعيل قال‏:‏ حدثني سكين بن عبد العزيز بن قيس، عن أبيه قال‏:‏ دخلت على عبد الله بن عمر، وجارية تحلق عنه الشعر، وقال‏:‏ النورة ترق الجلد‏.‏


'Abdul-'Aziz ibn Qays said, "I visited 'Abdullah ibn 'Umar while a slavegirl was shaving his hair." He said, "The lime depilatory makes the skin supple."


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৪- বগলের লোম উপড়ানো।

১৩০৪। আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ স্বভাব সুলভ জিনিস পাঁচটি। খতনা করা, নাভীর নিচের লোম কামানো, বগলের লোম উপড়ানো, গোঁফ খাটো করা এবং নখ কাটা। (বুখারী, নাসাঈ, তিরমিযী)

بَابُ نَتْفِ الإِبْطِ

حَدَّثَنَا يَحْيَى بْنُ قَزَعَةَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا إِبْرَاهِيمُ بْنُ سَعْدٍ، عَنِ ابْنِ شِهَابٍ، عَنْ سَعِيدِ بْنِ الْمُسَيِّبِ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ، عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم قَالَ‏:‏ الْفِطْرَةُ خَمْسٌ‏:‏ الْخِتَانُ، وَالِاسْتِحْدَادُ، وَنَتْفُ الإِبْطِ، وَقَصُّ الشَّارِبِ، وَتَقْلِيمُ الأظْفَارِ‏.‏

حدثنا يحيى بن قزعة، قال‏:‏ حدثنا إبراهيم بن سعد، عن ابن شهاب، عن سعيد بن المسيب، عن أبي هريرة، عن النبي صلى الله عليه وسلم قال‏:‏ الفطرة خمس‏:‏ الختان، والاستحداد، ونتف الإبط، وقص الشارب، وتقليم الأظفار‏.‏


Abu Hurayra reported that the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, said, "The fitra consists of five:
circumcision, shaving the pubic hair, plucking the armpits, clipping the moustache and clipping the nails."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৪- বগলের লোম উপড়ানো।

১৩০৫। আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ পাঁচটি জিনিস স্বভাব সুলভ। খতনা করা, নাভির নিচের লোম কামানো, নখ কাটা, বগলের নিচের লোম উপড়ানো এবং গোঁফ খাটো করা।

بَابُ نَتْفِ الإِبْطِ

حَدَّثَنَا مُسَدَّدٌ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا يَزِيدُ بْنُ زُرَيْعٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عَبْدُ الرَّحْمَنِ بْنُ إِسْحَاقَ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي سَعِيدُ بْنُ أَبِي سَعِيدٍ الْمَقْبُرِيُّ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ، عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم‏:‏ خَمْسٌ مِنَ الْفِطْرَةِ‏:‏ الْخِتَانُ، وَحَلْقُ الْعَانَةِ، وَتَقْلِيمُ الأَظْفَارِ، وَنَتْفُ الضَّبْعِ، وَقَصُّ الشَّارِبِ‏.‏

حدثنا مسدد، قال‏:‏ حدثنا يزيد بن زريع، قال‏:‏ حدثنا عبد الرحمن بن إسحاق قال‏:‏ حدثني سعيد بن أبي سعيد المقبري، عن أبي هريرة، عن النبي صلى الله عليه وسلم‏:‏ خمس من الفطرة‏:‏ الختان، وحلق العانة، وتقليم الأظفار، ونتف الضبع، وقص الشارب‏.‏

হাদিসের মানঃ তাহকীক অপেক্ষমাণ
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৪- বগলের লোম উপড়ানো।

১৩০৬। আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। পাঁচটি জিনিস স্বভাব সুলভ। নখ কাটা, গোঁফ খাটো করা, বগলের লোম উপড়ানো, নাভীর নিচের লোম কামানো এবং খতনা করা। (তাহাবী)

بَابُ نَتْفِ الإِبْطِ

حَدَّثَنَا عَبْدُ الْعَزِيزِ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي مَالِكٌ، عَنْ سَعِيدِ بْنِ أَبِي سَعِيدٍ الْمَقْبُرِيِّ، عَنْ أَبِيهِ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ‏:‏ خَمْسٌ مِنَ الْفِطْرَةِ‏:‏ تَقْلِيمُ الأَظْفَارِ، وَقَصُّ الشَّارِبِ، وَنَتْفُ الإِبْطِ، وَحَلْقُ الْعَانَةِ، وَالْخِتَانُ‏.‏

حدثنا عبد العزيز قال‏:‏ حدثني مالك، عن سعيد بن أبي سعيد المقبري، عن أبيه، عن أبي هريرة‏:‏ خمس من الفطرة‏:‏ تقليم الأظفار، وقص الشارب، ونتف الإبط، وحلق العانة، والختان‏.‏

হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৫- উত্তম ব্যবহার।

১৩০৭। আবুত তুফাইল (রাঃ) বলেন, আমি বাল্যকালে জিরানা নামক স্থানে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে গোশত বণ্টন করতে দেখেছি। আমি উটের এক এক টুকরা গোশত বহন করে আনতাম। এই অবস্থায় তাঁর নিকট এক মহিলা আসেন। তিনি তার জন্য নিজের চাদরখানা লেছে দেন। আমি জিজ্ঞেস করলাম, ইনি কে? বলা হলো, ইনি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর দুধমাতা। (আবু দাউদ, হাকিম)

بَابُ حُسْنِ الْعَهْدِ

حَدَّثَنَا أَبُو عَاصِمٍ، عَنْ جَعْفَرِ بْنِ يَحْيَى بْنِ ثَوْبَانَ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي عُمَارَةُ بْنُ ثَوْبَانَ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي أَبُو الطُّفَيْلِ قَالَ‏:‏ رَأَيْتُ النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم يَقْسِمُ لَحْمًا بِالْجِعْرَانَةِ، وَأَنَا يَوْمَئِذٍ غُلاَمٌ أَحْمِلُ عُضْوَ الْبَعِيرِ، فَأَتَتْهُ امْرَأَةٌ، فَبَسَطَ لَهَا رِدَاءَهُ، قُلْتُ‏:‏ مَنْ هَذِهِ‏؟‏ قَالَ‏:‏ هَذِهِ أُمُّهُ الَّتِي أَرْضَعَتْهُ‏.‏

حدثنا أبو عاصم، عن جعفر بن يحيى بن ثوبان قال‏:‏ حدثني عمارة بن ثوبان قال‏:‏ حدثني أبو الطفيل قال‏:‏ رأيت النبي صلى الله عليه وسلم يقسم لحما بالجعرانة، وأنا يومئذ غلام أحمل عضو البعير، فأتته امرأة، فبسط لها رداءه، قلت‏:‏ من هذه‏؟‏ قال‏:‏ هذه أمه التي أرضعته‏.‏


Abu't-Tufayl reported, "I saw the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, divide the meat at al-Ji'rana. At that time, I was a boy who carried the joint of the camel (after it had been sacrificed). A woman came to him and he spread out his robe for her. I asked, 'Who is this?' The reply was, 'This is the woman who suckled him.'"


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৬- আলাপ-পরিচয়।

১৩০৮। মুগীরা ইবনে শোবা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। এক ব্যক্তি বললো, আল্লাহ আমীরের অবস্থা সংশোধন করুন। আপনার দ্বাররক্ষী সাক্ষাতপ্রার্থী কতক লোককে চিনে এবং সে তাদের অগ্রাধিকার দেয়। আমীর জবাব দেন, আল্লাহ তাকে ক্ষমা করুন। পূর্ব-পরিচয় তো হিংস্র কুকুর ও খ্যাপা উটের সামনেও উপকারী প্রমাণিত হয়।

بَابُ الْمَعْرِفَةِ

حَدَّثَنَا أَبُو نُعَيْمٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا يُونُسُ، عَنْ أَبِي إِسْحَاقَ، عَنِ الْمُغِيرَةِ بْنِ شُعْبَةَ‏:‏ قَالَ رَجُلٌ‏:‏ أَصْلَحَ اللَّهُ الأَمِيرَ، إِنَّ آذِنَكَ يَعْرِفُ رِجَالاً فَيُؤْثِرُهُمْ بِالإِذْنِ، قَالَ‏:‏ عَذَرَهُ اللَّهُ، إِنَّ الْمَعْرِفَةَ لَتَنْفَعُ عِنْدَ الْكَلْبِ الْعَقُورِ، وَعِنْدَ الْجَمَلِ الصَّؤُولِ‏.‏

حدثنا أبو نعيم، قال‏:‏ حدثنا يونس، عن أبي إسحاق، عن المغيرة بن شعبة‏:‏ قال رجل‏:‏ أصلح الله الأمير، إن آذنك يعرف رجالا فيؤثرهم بالإذن، قال‏:‏ عذره الله، إن المعرفة لتنفع عند الكلب العقور، وعند الجمل الصؤول‏.‏


Al-Mughira ibn Shu'ba reported that a man said, "May Allah make the amir thrive! Your chamberlain recognises certain men and gives them preference in permission to enter." He said, "May Allah excuse him! Recognition helps with a voracious good and attacking camel."


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৭- শিশুদের আখরোট দিয়ে খেলা করা।

১৩০৯। ইবরাহীম (রহঃ) বলেন, আমাদের মুরব্বীগণ আমাদেরকে কুকুরের খেলা ব্যতীত যে কোন খেলাধুলা করার অনুমতি দিতেন। ইমাম বুখারী (রহঃ) বলেন, অর্থাৎ শিশুদেরকে।

بَابُ لَعِبِ الصِّبْيَانِ بِالْجَوْزِ

حَدَّثَنَا مُوسَى بْنُ إِسْمَاعِيلَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو عَوَانَةَ، عَنْ مُغِيرَةَ، عَنْ إِبْرَاهِيمَ قَالَ‏:‏ كَانَ أَصْحَابُنَا يُرَخِّصُونَ لَنَا فِي اللُّعَبِ كُلِّهَا، غَيْرِ الْكِلاَبِ قَالَ أَبُو عَبْدِ اللهِ‏:‏ يَعْنِي لِلصِّبْيَانِ‏.‏

حدثنا موسى بن إسماعيل، قال‏:‏ حدثنا أبو عوانة، عن مغيرة، عن إبراهيم قال‏:‏ كان أصحابنا يرخصون لنا في اللعب كلها، غير الكلاب قال أبو عبد الله‏:‏ يعني للصبيان‏.‏


Ibrahim said, "Our companions used to allow us all sorts of play things except for dogs."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৭- শিশুদের আখরোট দিয়ে খেলা করা।

১৩১০। আবু উকবা (রহঃ) বলেন, একবার আমি ইবনে উমার (রাঃ)-র সাথে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম। তিনি কতক আবিসিনীয় বালককে অতিক্রম করলেন, যাদের তিনি খেলাধুলায় মত্ত দেখলেন। তিনি দুটি দিরহাম (রূপার মুদ্রা) বের করে তাদের দিলেন।

بَابُ لَعِبِ الصِّبْيَانِ بِالْجَوْزِ

حَدَّثَنَا مُوسَى، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عَبْدُ الْعَزِيزِ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي شَيْخٌ مِنْ أَهْلِ الْخَيْرِ يُكَنَّى أَبَا عُقْبَةَ قَالَ‏:‏ مَرَرْتُ مَعَ ابْنِ عُمَرَ مَرَّةً بِالطَّرِيقِ، فَمَرَّ بِغِلْمَةٍ مِنَ الْحَبَشِ، فَرَآهُمْ يَلْعَبُونَ، فَأَخْرَجَ دِرْهَمَيْنِ فَأَعْطَاهُمْ‏.‏

حدثنا موسى، قال‏:‏ حدثنا عبد العزيز قال‏:‏ حدثني شيخ من أهل الخير يكنى أبا عقبة قال‏:‏ مررت مع ابن عمر مرة بالطريق، فمر بغلمة من الحبش، فرآهم يلعبون، فأخرج درهمين فأعطاهم‏.‏


Abu 'Uqba said, "I once walked along the road with Ibn 'Umar. I passed some Abyssinian lads who were playing and he brought out two dirhams which he gave to them."


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৭- শিশুদের আখরোট দিয়ে খেলা করা।

১৩১১। আয়েশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমার খেলার সাথীদের আমার নিকট পাঠিয়ে দিতেন। তারা খেলনা অর্থাৎ ক্ষুদ্র পুতুল নিয়ে খেলতো। (বুখারী, মুসলিম)

بَابُ لَعِبِ الصِّبْيَانِ بِالْجَوْزِ

حَدَّثَنَا عَبْدُ اللهِ قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنِي عَبْدُ الْعَزِيزِ بْنُ أَبِي سَلَمَةَ، عَنْ هِشَامٍ، عَنْ أَبِيهِ، عَنْ عَائِشَةَ، أَنَّ النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم كَانَ يُسَرِّبُ إِلَيَّ صَوَاحِبِي يَلْعَبْنَ بِاللَّعِبِ، الْبَنَاتِ الصِّغَارِ‏.‏

حدثنا عبد الله قال‏:‏ أخبرني عبد العزيز بن أبي سلمة، عن هشام، عن أبيه، عن عائشة، أن النبي صلى الله عليه وسلم كان يسرب إلي صواحبي يلعبن باللعب، البنات الصغار‏.‏


'A'isha reported that the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, used to call her companions to her who were playing with dolls."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৮- কবুতর যবেহ করা।

১৩১২। আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এক ব্যক্তিকে একটি কবুতরের পিছু ধাওয়া করতে দেখলেন। তিনি বলেনঃ এক শয়তান আরেক শয়তানের পিছে লেগেছে। (আবু দাউদ, ইবনে মাজাহ, মুসনাদ আহমাদ)

بَابُ ذَبْحِ الْحَمَامِ

حَدَّثَنَا شِهَابُ بْنُ مَعْمَرٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا حَمَّادُ بْنُ سَلَمَةَ، عَنْ مُحَمَّدِ بْنِ عَمْرٍو، عَنْ أَبِي سَلَمَةَ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ قَالَ‏:‏ رَأَى رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم رَجُلاً يَتْبَعُ حَمَامَةً، قَالَ‏:‏ شَيْطَانٌ يَتْبَعُ شَيْطَانَةً‏.‏

حدثنا شهاب بن معمر، قال‏:‏ حدثنا حماد بن سلمة، عن محمد بن عمرو، عن أبي سلمة، عن أبي هريرة قال‏:‏ رأى رسول الله صلى الله عليه وسلم رجلا يتبع حمامة، قال‏:‏ شيطان يتبع شيطانة‏.‏


Abu Hurayra said, "The Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, saw a man following a dove and said, 'A shaytan following a shaytan.'"


হাদিসের মানঃ হাসান (Hasan)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৮- কবুতর যবেহ করা।

১৩১৩। হাসান (রহঃ) বলেন, উসমান (রাঃ) জুমুআর নামাযের খুতবা দিলেই তাতে কুকুর হত্যা করার এবং কবুতর যবেহ করার নির্দেশ দিতেন (মুসান্নাফ আবদুর রাযযাক)।

بَابُ ذَبْحِ الْحَمَامِ

حَدَّثَنَا مُوسَى بْنُ إِسْمَاعِيلَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا يُوسُفُ بْنُ عَبْدَةَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا الْحَسَنُ قَالَ‏:‏ كَانَ عُثْمَانُ لاَ يَخْطُبُ جُمُعَةً إِلاَّ أَمَرَ بِقَتْلِ الْكِلاَبِ، وَذَبْحِ الْحَمَامِ‏.‏

حدثنا موسى بن إسماعيل، قال‏:‏ حدثنا يوسف بن عبدة، قال‏:‏ حدثنا الحسن قال‏:‏ كان عثمان لا يخطب جمعة إلا أمر بقتل الكلاب، وذبح الحمام‏.‏


Al-Hasan said, "'Uthman did not speak on any Jumu'a without commanding the killing of dogs and slaughtering of doves."


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৮- কবুতর যবেহ করা।

১৩১৪। হাসান (রহঃ) বলেন, আমি উসমান (রাঃ)-কে তাঁর ভাষণে কুকুর নিধনের এবং কবুতর যবেহ করার নির্দেশ দিতে শুনেছি। (মুসান্নাফ আবদুর রাযযাক)

بَابُ ذَبْحِ الْحَمَامِ

حَدَّثَنَا حَدَّثَنَا مُوسَى , قَالَ : حَدَّثَنَا مُبَارَكٌ ، عَنِ الْحَسَنِ , قَالَ : سَمِعْتُ عُثْمَانَ " يَأْمُرُ فِي خُطْبَتِهِ بِقَتْلِ الْكِلابِ ، وَذَبْحِ الْحَمَامِ

حدثنا حدثنا موسى , قال : حدثنا مبارك ، عن الحسن , قال : سمعت عثمان " يأمر في خطبته بقتل الكلاب ، وذبح الحمام


see previous Hadith.


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা

পরিচ্ছেদঃ ৬২৯- যার প্রয়োজন আছে সে-ই যাবে।

১৩১৫। যায়েদ ইবনে সাবিত (রাঃ) থেকে বর্ণিত। একদিন উমার ইবনুল খাত্তাব (রাঃ) তার নিকট এসে (ঘরে প্রবেশের) অনুমতি চান। তিনি তাকে অনুমতি দিলেন। তখন তার মাথা তার বাঁদীর হাতে ছিল এবং সে তাতে চিরুনী করছিল। তিনি তার মাথা সরিয়ে নিলেন। উমার (রাঃ) তাকে বলেন, তাকে অপনার মাথায় চিরুনী করতে দিন। তিনি বলেন, হে আমীরুল মুমিনীন! আপনি লোক পাঠালে আমিই তো আপনার নিকট যেতে পারতাম। উমার (রাঃ) বলেন, প্রয়োজনটা তো আমার। (বায়হাকীর সুনানুল কুবরা)

بَابُ مَنْ كَانَتْ لَهُ حَاجَةٌ , فَهُوَ أَحَقُّ أَنْ يَذْهَبَ إِلَيْهِ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدٌ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا عَبْدُ اللهِ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا يَحْيَى بْنُ أَيُّوبَ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي عُقَيْلُ بْنُ خَالِدٍ، أَنَّ سَعِيدَ بْنَ سُلَيْمَانَ بْنِ زَيْدِ بْنِ ثَابِتٍ حَدَّثَهُ، عَنْ أَبِيهِ، عَنْ جَدِّهِ زَيْدِ بْنِ ثَابِتٍ، أَنَّ عُمَرَ بْنَ الْخَطَّابِ جَاءَهُ يَسْتَأْذِنُ عَلَيْهِ يَوْمًا، فَأَذِنَ لَهُ وَرَأْسُهُ فِي يَدِ جَارِيَةٍ لَهُ تُرَجِّلُهُ، فَنَزَعَ رَأْسَهُ، فَقَالَ لَهُ عُمَرُ‏:‏ دَعْهَا تُرَجِّلُكَ، فَقَالَ‏:‏ يَا أَمِيرَ الْمُؤْمِنِينَ، لَوْ أَرْسَلْتَ إِلَيَّ جِئْتُكَ، فَقَالَ عُمَرُ‏:‏ إِنَّمَا الْحَاجَةُ لِي‏.‏

حدثنا محمد، قال‏:‏ أخبرنا عبد الله، قال‏:‏ حدثنا يحيى بن أيوب قال‏:‏ حدثني عقيل بن خالد، أن سعيد بن سليمان بن زيد بن ثابت حدثه، عن أبيه، عن جده زيد بن ثابت، أن عمر بن الخطاب جاءه يستأذن عليه يوما، فأذن له ورأسه في يد جارية له ترجله، فنزع رأسه، فقال له عمر‏:‏ دعها ترجلك، فقال‏:‏ يا أمير المؤمنين، لو أرسلت إلي جئتك، فقال عمر‏:‏ إنما الحاجة لي‏.‏


Zayd ibn Thabit reported that 'Umar ibn al-Khattab came to him to ask to see him one day and he gave him permission while his head was in the hands of a slavegirl of his who was combing his hair. He removed his head and 'Umar said to him, 'Let her comb it.' He said, 'Amir al-Mu'minin, if you were to send for me, I would come to you.' ''Umar said, 'It is my need.'"


হাদিসের মানঃ হাসান (Hasan)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
কুমন্ত্রনা, কুধারনা ও বাচালতা
দেখানো হচ্ছেঃ থেকে ২০ পর্যন্ত, সর্বমোট ৪১ টি রেকর্ডের মধ্য থেকে পাতা নাম্বারঃ 1 2 3 পরের পাতা »