আল-আদাবুল মুফরাদ অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৫৬- মহামহিম আল্লাহর নিকট পছন্দনীয় নামসমূহ।

৮২১। আবু ওয়াহব আল-জুশামী (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি ছিলেন সাহাবী। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ তোমরা নবীগণের নামানুসারে নাম রাখো। নামসমূহের মধ্যে আল্লাহর নিকট প্রিয়তর হচ্ছে আবদুল্লাহ ও আবদুর রহমান। যথার্থ নাম হচ্ছে হারিস (চাষী) ও হাম্মাম (দাতা) এবং সবচেয়ে নিকৃষ্ট নাম হচ্ছে হারব ও মুররা। -(নাসাঈ, আবু দাউদ, আহমাদ)

بَابُ أَحَبِّ الأسْمَاءِ إِلَى اللهِ عَزَّ وَجَلَّ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ يُوسُفَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَحْمَدُ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا هِشَامُ بْنُ سَعِيدٍ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا مُحَمَّدُ بْنُ مُهَاجِرٍ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي عَقِيلُ بْنُ شَبِيبٍ، عَنْ أَبِي وَهْبٍ، وَكَانَتْ لَهُ صُحْبَةٌ، عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم قَالَ‏:‏ تَسَمَّوْا بِأَسْمَاءِ الأَنْبِيَاءِ، وَأَحَبُّ الأسْمَاءِ إِلَى اللهِ عَزَّ وَجَلَّ‏:‏ عَبْدُ اللهِ، وَعَبْدُ الرَّحْمَنِ، وَأَصْدَقُهَا‏:‏ حَارِثٌ، وَهَمَّامٌ، وَأَقْبَحُهَا‏:‏ حَرْبٌ، وَمُرَّةُ‏.‏

حدثنا محمد بن يوسف، قال‏:‏ حدثنا أحمد، قال‏:‏ حدثنا هشام بن سعيد، قال‏:‏ أخبرنا محمد بن مهاجر قال‏:‏ حدثني عقيل بن شبيب، عن أبي وهب، وكانت له صحبة، عن النبي صلى الله عليه وسلم قال‏:‏ تسموا بأسماء الأنبياء، وأحب الأسماء إلى الله عز وجل‏:‏ عبد الله، وعبد الرحمن، وأصدقها‏:‏ حارث، وهمام، وأقبحها‏:‏ حرب، ومرة‏.‏


Abu Wahb, a Companion, reported that the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, said, "Name yourselves with the names of the Prophets. The names which Allah Almighty loves most are 'Abdullah and 'Abdu'r-Rahman. The most truthful names are Harith and Humam. The ugliest names are Harb and Murra."


হাদিসের মানঃ সহিহ/যঈফ [মিশ্রিত]
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৫৬- মহামহিম আল্লাহর নিকট পছন্দনীয় নামসমূহ।

৮২২। জাবের (রাঃ) বলেন, আমাদের মধ্যকার এক ব্যক্তির একটি পুত্র সন্তান ভূমিষ্ঠ হলো। সে তার নাম রাখলো কাসেম। আমরা বললাম, আমরা তোমাকে আবুল কাসেম (কাসেমের পিতা) ডাকনাম দিয়ে গৌরবান্বিত করবো না। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে অবহিত করা হলে তিনি বলেনঃ তোমার ছেলের নাম রাখো আবদুর রহমান। (বুখারী, মুসলিম)

بَابُ أَحَبِّ الأسْمَاءِ إِلَى اللهِ عَزَّ وَجَلَّ

حَدَّثَنَا صَدَقَةُ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا ابْنُ عُيَيْنَةَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا ابْنُ الْمُنْكَدِرِ، عَنْ جَابِرٍ قَالَ‏:‏ وُلِدَ لِرَجُلٍ مِنَّا غُلاَمٌ فَسَمَّاهُ‏:‏ الْقَاسِمَ، فَقُلْنَا‏:‏ لاَ نُكَنِّيكَ أَبَا الْقَاسِمِ وَلاَ كَرَامَةَ، فَأُخْبِرَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم فَقَالَ‏:‏ سَمِّ ابْنَكَ عَبْدَ الرَّحْمَنِ‏.‏

حدثنا صدقة، قال‏:‏ حدثنا ابن عيينة، قال‏:‏ حدثنا ابن المنكدر، عن جابر قال‏:‏ ولد لرجل منا غلام فسماه‏:‏ القاسم، فقلنا‏:‏ لا نكنيك أبا القاسم ولا كرامة، فأخبر النبي صلى الله عليه وسلم فقال‏:‏ سم ابنك عبد الرحمن‏.‏


Jabir said, "A man had a child and named him al-Qasim. We said, 'We will not give you the kunya Abu'l-Qasim nor will we so honour you. The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, was told and said, 'Call your son 'Abdu'r-Rahman.'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৫৭- নাম পরিবর্তন করা।

৮২৩। সাহল (রাঃ) বলেন, মুনযির ইবনে আবু উসাইদ জন্মগ্রহণ করলে তাকে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর খেদমতে আনা হলো। তিনি তাকে তার উরুর উপর রাখলেন। আর আবু উসাইদ (রাঃ) তাঁর পাশে উপবিষ্ট ছিলেন। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার সামনের কোন একটি জিনিসে মনোযোগী হয়ে রইলেন। তখন আবু উসাইদ (রাঃ) তার পুত্রকে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর উরু থেকে তুলে নিতে বললে তাকে তুলে নেয়া হলো। উক্ত বিষয়ের প্রতি মনোযোগ শেষ হলে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম জিজ্ঞেস করলেনঃ বাচ্চাটি কোথায়? আবু উসাইদ (রাঃ) বলেন, হে আল্লাহর রাসূল! আমি তাকে বাড়ী পাঠিয়ে দিয়েছি। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম জিজ্ঞেস করলেনঃ তার নাম কি? তিনি বলেন, অমুক। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ না, বরং তার নাম মুনযির। ঐ দিন থেকে তার নাম হলো মুনযির। -(বুখারী, মুসলিম, ইবনে মাজাহ)

بَابُ تَحْوِيلِ الاسْمِ إِلَى الاسْمِ

حَدَّثَنَا سَعِيدُ بْنُ أَبِي مَرْيَمَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو غَسَّانَ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي أَبُو حَازِمٍ، عَنْ سَهْلٍ قَالَ‏:‏ أُتِيَ بِالْمُنْذِرِ بْنِ أَبِي أُسَيْدٍ إِلَى النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم حِينَ وُلِدَ، فَوَضَعَهُ عَلَى فَخِذِهِ، وَأَبُو أُسَيْدٍ جَالِسٌ، فَلَهَى النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم بِشَيْءٍ بَيْنَ يَدَيْهِ، وَأَمَرَ أَبُو أُسَيْدٍ بِابْنِهِ فَاحْتُمِلَ مِنْ فَخِذِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم، فَاسْتَفَاقَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم فَقَالَ‏:‏ أَيْنَ الصَّبِيُّ‏؟‏ فَقَالَ أَبُو أُسَيْدٍ‏:‏ قَلَبْنَاهُ يَا رَسُولَ اللهِ، قَالَ‏:‏ مَا اسْمُهُ‏؟‏ قَالَ‏:‏ فُلاَنٌ، قَالَ‏:‏ لاَ، لَكِنِ اسْمُهُ الْمُنْذِرُ، فَسَمَّاهُ يَوْمَئِذٍ الْمُنْذِرَ‏.‏

حدثنا سعيد بن أبي مريم، قال‏:‏ حدثنا أبو غسان قال‏:‏ حدثني أبو حازم، عن سهل قال‏:‏ أتي بالمنذر بن أبي أسيد إلى النبي صلى الله عليه وسلم حين ولد، فوضعه على فخذه، وأبو أسيد جالس، فلهى النبي صلى الله عليه وسلم بشيء بين يديه، وأمر أبو أسيد بابنه فاحتمل من فخذ النبي صلى الله عليه وسلم، فاستفاق النبي صلى الله عليه وسلم فقال‏:‏ أين الصبي‏؟‏ فقال أبو أسيد‏:‏ قلبناه يا رسول الله، قال‏:‏ ما اسمه‏؟‏ قال‏:‏ فلان، قال‏:‏ لا، لكن اسمه المنذر، فسماه يومئذ المنذر‏.‏


Sahl said, "Al-Mundhir ibn Abi Usayd was brought to the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, when he was born and the Prophet placed him on his thigh while Abu Usayd was seated near him. The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, was busy with something in front of him, so Abu Usayd told someone to take his son from the Prophet's leg. When the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, became aware of it, he asked, 'Where is the child?' Abu Usayd replied, 'We sent him home.' The Prophet asked, 'What is his name?' He replied, 'Such-and-such.' The Prophet said, 'No, rather his name is al-Mundhir.' So we called him al-Mundhir from that day."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৫৮- মহামহিম আল্লাহর নিকট অপছন্দনীয় নামসমূহ।

৮২৪। আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ যে লোকের নাম মালিকুল আমলাক (রাজাধিরাজ) রাখা হয়েছে, আল্লাহর কাছে সেটি সর্বনিকৃষ্ট নাম। (বুখারী, মুসলিম, দারিমী, তিরমিযী)

بَابُ أَبْغَضِ الأسْمَاءِ إِلَى اللهِ عَزَّ وَجَلَّ

حَدَّثَنَا أَبُو الْيَمَانِ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا شُعَيْبُ بْنُ أَبِي حَمْزَةَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو الزِّنَادِ، عَنِ الأَعْرَجِ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ قَالَ‏:‏ قَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم‏:‏ أَخْنَى الأسْمَاءِ عِنْدَ اللهِ رَجُلٌ تَسَمَّى مَلِكَ الأمْلاكِ‏.‏

حدثنا أبو اليمان، قال‏:‏ حدثنا شعيب بن أبي حمزة، قال‏:‏ حدثنا أبو الزناد، عن الأعرج، عن أبي هريرة قال‏:‏ قال رسول الله صلى الله عليه وسلم‏:‏ أخنى الأسماء عند الله رجل تسمى ملك الأملاك‏.‏


Abu Hurayra reported that the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, "The name which hates the most is that a man be called the King of Kings."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৫৯- যে ব্যক্তি অপরকে তার ক্ষুদ্রত্ববাচক নামে ডাকে।

৮২৫। তলক ইবনে হাবীব (রহঃ) বলেন, আমি শাফাআতের বিষয়টিকে কঠোরভাবে অস্বীকার করতাম। আমি জাবের (রাঃ) কে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, হে তুলায়ক! আমি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে বলতে শুনেছিঃ একদল লোক দোযখে যাওয়ার পর (শাফাআতধন্য হয়ে) সেখান থেকে বের হয়ে আসবে। তুমি যা পড়ো আমরাও তাই পড়ি। (বুখারী, মুসলিম, মুসনাদ আহমাদ)

بَابُ مَنْ دَعَا آخَرَ بِتَصْغِيرِ اسْمِهِ

حَدَّثَنَا مُوسَى، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا الْقَاسِمُ بْنُ الْفَضْلِ، عَنْ سَعِيدِ بْنِ الْمُهَلَّبِ، عَنْ طَلْقِ بْنِ حَبِيبٍ قَالَ‏:‏ كُنْتُ أَشَدَّ النَّاسِ تَكْذِيبًا بِالشَّفَاعَةِ، فَسَأَلْتُ جَابِرًا، فَقَالَ‏:‏ يَا طُلَيْقُ، سَمِعْتُ النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم يَقُولُ‏:‏ يَخْرُجُونَ مِنَ النَّارِ بَعْدَ دُخُولٍ، وَنَحْنُ نَقْرَأُ الَّذِي تَقْرَأُ‏.‏

حدثنا موسى، قال‏:‏ حدثنا القاسم بن الفضل، عن سعيد بن المهلب، عن طلق بن حبيب قال‏:‏ كنت أشد الناس تكذيبا بالشفاعة، فسألت جابرا، فقال‏:‏ يا طليق، سمعت النبي صلى الله عليه وسلم يقول‏:‏ يخرجون من النار بعد دخول، ونحن نقرأ الذي تقرأ‏.‏


Talq ibn Habib said, "I was the most vehement person in denying intercession. I questioned Jabir and he said, 'Tulayq, I heard the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, say, "They will come out of the Fire after entering it," and we recite (the same Book) you recite.'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬০- কোন ব্যক্তিকে তার প্রিয় নামে ডাকা।

৮২৬। হানবাল ইবনে হিয়াম (রহঃ) বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কোন ব্যক্তিকে তার নামসমূহের মধ্যে তাঁর নিকট অপেক্ষাকৃত প্রিয় নামে বা উপনামে ডাকতেই পছন্দ করতেন। (তাহযীবুল কামাল)

بَابُ يُدْعَى الرَّجُلُ بِأَحَبِّ الأسْمَاءِ إِلَيْهِ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ أَبِي بَكْرٍ الْمُقَدَّمِيُّ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ عُثْمَانَ الْقُرَشِيُّ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا ذَيَّالُ بْنُ عُبَيْدِ بْنِ حَنْظَلَةَ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي جَدِّي حَنْظَلَةُ بْنُ حِذْيَمَ قَالَ‏:‏ كَانَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم يُعْجِبُهُ أَنْ يُدْعَى الرَّجُلُ بِأَحَبِّ أَسْمَائِهِ إِلَيْهِ، وَأَحَبِّ كُنَاهُ‏.‏

حدثنا محمد بن أبي بكر المقدمي، قال‏:‏ حدثنا محمد بن عثمان القرشي، قال‏:‏ حدثنا ذيال بن عبيد بن حنظلة قال‏:‏ حدثني جدي حنظلة بن حذيم قال‏:‏ كان النبي صلى الله عليه وسلم يعجبه أن يدعى الرجل بأحب أسمائه إليه، وأحب كناه‏.‏


Hanzala ibn Hidhaym said, "The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, used to like to call a man by the name that he liked best and by his favourite kunya."


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬১- আছিয়া নাম পরিবর্তন করা।

৮২৭। ইবনে উমার (রাঃ) বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম “আসিয়া” (পপিষ্ঠা) নাম পরিবর্তন করেন এবং বলেনঃ তুমি জামীলা (সুন্দরী)। (মুসলিম, আবু দাউদ, তিরমিযী, মুসনাদ আবু আওয়ানা, ইবনে হিব্বান)

بَابُ تَحْوِيلِ اسْمِ عَاصِيَةَ

حَدَّثَنَا صَدَقَةُ بْنُ الْفَضْلِ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا يَحْيَى بْنُ سَعِيدٍ الْقَطَّانُ، عَنْ عُبَيْدِ اللهِ، عَنْ نَافِعٍ، عَنِ ابْنِ عُمَرَ، أَنَّ النَّبِيَّ غَيْرَ اسْمَ عَاصِيَةَ وَقَالَ‏:‏ أَنْتِ جَمِيلَةُ‏.‏

حدثنا صدقة بن الفضل، قال‏:‏ حدثنا يحيى بن سعيد القطان، عن عبيد الله، عن نافع، عن ابن عمر، أن النبي غير اسم عاصية وقال‏:‏ أنت جميلة‏.‏


Ibn 'Umar said that the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, changed a woman's name from 'Asiya (rebellious), saying, "You are Jamila (beautiful)."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬১- আছিয়া নাম পরিবর্তন করা।

৮২৮। মুহাম্মাদ ইবনে আমর ইবনে আতা (রহঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি যয়নব বিনতে আবু সালামার নিকট প্রবেশ করলেন। যয়নব তাকে তার সংগী বোনটির নাম জিজ্ঞেস করেন। তিনি বলেন, আমি বললাম, তার নাম বাররা (পুণ্যবতী)। তিনি বলেন, তার নাম পরিবর্তন করো। কেননা নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যয়নব বিনতে জাহশকে বিবাহ করেন এবং তার নাম ছিল বাররা। তিনি তা পরিবর্তন করে তার নাম রাখেন যয়নব। বিবাহ করার পর তিনি তার ঘরে গেলেন। তখন আমার নাম ছিল বাররা। তিনি উম্মু সালামা (রাঃ) কে আমাকে এই নামে ডাকতে শুনলেন। তখন তিনি বলেনঃ তোমরা নিজেদেরকে পবিত্রতায় আখ্যায়িত করো না। কেননা কে পুণ্যবতী আর কে পাপিষ্ঠা তা আল্লাহই অধিক জ্ঞাত। তুমি তার নাম রাখো যয়নব। তিনি বলেন, সে যয়নবই। আমি তাকে বললাম, আমার নাম? তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যে নামে পরিবর্তন করেছেন সেই নাম রেখে দাও। অতএব তিনি তার নাম রাখলেন যয়নব। (মুসলিম, দারিমী, মুসনাদ আবু আওয়ানা, আহমাদ, ইবনে হিব্বান)

بَابُ تَحْوِيلِ اسْمِ عَاصِيَةَ

حَدَّثَنَا عَلِيُّ بْنُ عَبْدِ اللهِ، وَسَعِيدُ بْنُ مُحَمَّدٍ، قَالاَ‏:‏ حَدَّثَنَا يَعْقُوبُ بْنُ إِبْرَاهِيمَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبِي، عَنْ مُحَمَّدِ بْنِ إِسْحَاقَ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي مُحَمَّدُ بْنُ عَمْرِو بْنِ عَطَاءٍ، أَنَّهُ دَخَلَ عَلَى زَيْنَبَ بِنْتِ أَبِي سَلَمَةَ، فَسَأَلَتْهُ عَنِ اسْمِ أُخْتٍ لَهُ عِنْدَهُ‏؟‏ قَالَ‏:‏ فَقُلْتُ‏:‏ اسْمُهَا بَرَّةُ، قَالَتْ‏:‏ غَيِّرِ اسْمَهَا، فَإِنَّ النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم نَكَحَ زَيْنَبَ بِنْتَ جَحْشٍ وَاسْمُهَا بَرَّةُ، فَغَيَّرَ اسْمَهَا إِلَى زَيْنَبَ، وَدَخَلَ عَلَى أُمِّ سَلَمَةَ حِينَ تَزَوَّجَهَا، وَاسْمِي بَرَّةُ، فَسَمِعَهَا تَدْعُونِي‏:‏ بَرَّةَ، فَقَالَ‏:‏ لاَ تُزَكُّوا أَنْفُسَكُمْ، فَإِنَّ اللَّهَ هُوَ أَعْلَمُ بِالْبَرَّةِ مِنْكُنَّ وَالْفَاجِرَةِ، سَمِّيهَا زَيْنَبَ، فَقَالَتْ‏:‏ فَهِيَ زَيْنَبُ، فَقُلْتُ لَهَا‏:‏ سَمِّي، فَقَالَتْ‏:‏ غَيِّرْهُ إِلَى مَا غَيَّرَ إِلَيْهِ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم، فَسَمِّهَا زَيْنَبَ‏.‏

حدثنا علي بن عبد الله، وسعيد بن محمد، قالا‏:‏ حدثنا يعقوب بن إبراهيم، قال‏:‏ حدثنا أبي، عن محمد بن إسحاق قال‏:‏ حدثني محمد بن عمرو بن عطاء، أنه دخل على زينب بنت أبي سلمة، فسألته عن اسم أخت له عنده‏؟‏ قال‏:‏ فقلت‏:‏ اسمها برة، قالت‏:‏ غير اسمها، فإن النبي صلى الله عليه وسلم نكح زينب بنت جحش واسمها برة، فغير اسمها إلى زينب، ودخل على أم سلمة حين تزوجها، واسمي برة، فسمعها تدعوني‏:‏ برة، فقال‏:‏ لا تزكوا أنفسكم، فإن الله هو أعلم بالبرة منكن والفاجرة، سميها زينب، فقالت‏:‏ فهي زينب، فقلت لها‏:‏ سمي، فقالت‏:‏ غيره إلى ما غير إليه رسول الله صلى الله عليه وسلم، فسمها زينب‏.‏


Muhammad ibn 'Ata' related that he visited Zaynab bint Salama and she asked him about the name of one of his sisters. He reports:
"I said, 'Her name is Barra.' She said, 'Change her name. The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, married Zaynab bint Jahsh. Her name was Barra and he changed it to Zaynab. I visited Umm Salama when she married him and my name was Barra. He heard her call me Barra and said, 'Do not adorn yourselves. Allah is the One who knows those who are pious (barra) among you and those who are deviant. Call her Zaynab.' Umm Salama said, 'She is Zaynab.' I said to Zaynab, 'Give her a name.' Zaynab said, 'Change it to what the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, changed it.'" So he called her Zaynab.


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬২- সারম নাম পরিবর্তন করা।

৮২৯। সাঈদ আল-মাখযূমী (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তাঁর পূর্বনাম ছিল সারম (কর্তনকার, ছিন্নকারী)। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার নাম রাখেন সাঈদ (ভাগ্যবান)। (অধস্তন রাবী আবদুর রহমান (রহঃ) বলেন) আমি উসমান (রাঃ) কে মসজিদে হেলান দিয়ে বসা অবস্থায় দেখেছি। (হাকিম)

بَابُ الصَّرْمِ

حَدَّثَنَا إِبْرَاهِيمُ بْنُ الْمُنْذِرِ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا زَيْدُ بْنُ حُبَابٍ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي عُمَرُ بْنُ عُثْمَانَ بْنِ عَبْدِ الرَّحْمَنِ بْنِ سَعِيدٍ الْمَخْزُومِيُّ، حَدَّثَنِي جَدِّي، عَنْ أَبِيهِ، وَكَانَ اسْمُهُ الصَّرْمَ، فَسَمَّاهُ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم سَعِيدًا، قَالَ‏:‏ رَأَيْتُ عُثْمَانَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ مُتَّكِئًا فِي الْمَسْجِدِ‏.‏

حدثنا إبراهيم بن المنذر، قال‏:‏ حدثنا زيد بن حباب قال‏:‏ حدثني عمر بن عثمان بن عبد الرحمن بن سعيد المخزومي، حدثني جدي، عن أبيه، وكان اسمه الصرم، فسماه النبي صلى الله عليه وسلم سعيدا، قال‏:‏ رأيت عثمان رضي الله عنه متكئا في المسجد‏.‏


Ibn 'Abdu'r-Rahman ibn Sa'id al-Makhzumi, whose name was as-Surm, reported that the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, named him Sa'id (happy). He related that he had seen 'Uthman reclining in the mosque.


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬২- সারম নাম পরিবর্তন করা।

৮৩০। আলী (রাঃ) বলেন, হাসান ভূমিষ্ঠ হলে আমি তার নাম রাখলাম হারব (যুদ্ধ)। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এসে বলেনঃ আমার নাতি আমাকে দেখাও, তোমরা তার কি নাম রেখেছে? আমরা বললাম, হারব। তিনি বলেনঃ বরং তার নাম হাসান। পরে হুসাইন ভূমিষ্ঠ হলে আমি তার নাম রাখলাম হারব। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এসে বলেনঃ আমার নাতি আমাকে দেখাও, তোমরা তার কি নাম রেখেছো? আমরা বললাম, হারব। তিনি বলেনঃ বরং তার নাম হুসাইন। অতঃপর তৃতীয় সন্তান ভূমিষ্ঠ হলে আমি তার নামও রাখলাম হারব। অতঃপর নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এসে বলেনঃ আমার নাতি আমাকে দেখাও, তোমারা তার কি নাম রেখেছে? আমরা বললাম, হারব। তিনি বলেনঃ বরং তার নাম মুহসিন। অতঃপর তিনি বলেনঃ আমি হারূন (আঃ)-এর সন্তান শিবর, শুবায়র ও মুশাব্বির-এর নাম অনুসারে এদের নাম রাখলাম। (ইসতীআব, আহমাদ, হাকিম)

بَابُ الصَّرْمِ

حَدَّثَنَا أَبُو نُعَيْمٍ، عَنْ إِسْرَائِيلَ، عَنْ أَبِي إِسْحَاقَ، عَنْ هَانِئِ بْنِ هَانِئٍ، عَنْ عَلِيٍّ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ قَالَ‏:‏ لَمَّا وُلِدَ الْحَسَنُ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ سَمَّيْتُهُ‏:‏ حَرْبًا، فَجَاءَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم فَقَالَ‏:‏ أَرُونِي ابْنِي، مَا سَمَّيْتُمُوهُ‏؟‏ قُلْنَا‏:‏ حَرْبًا، قَالَ‏:‏ بَلْ هُوَ حَسَنٌ‏.‏ فَلَمَّا وُلِدَ الْحُسَيْنُ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ سَمَّيْتُهُ حَرْبًا، فَجَاءَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم فَقَالَ‏:‏ أَرُونِي ابْنِي، مَا سَمَّيْتُمُوهُ‏؟‏ قُلْنَا‏:‏ حَرْبًا، قَالَ‏:‏ بَلْ هُوَ حُسَيْنٌ‏.‏ فَلَمَّا وُلِدَ الثَّالِثُ سَمَّيْتُهُ‏:‏ حَرْبًا، فَجَاءَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم فَقَالَ‏:‏ أَرُونِي ابْنِي، مَا سَمَّيْتُمُوهُ‏؟‏ قُلْنَا‏:‏ حَرْبًا، قَالَ‏:‏ بَلْ هُوَ مُحْسِنٌ، ثُمَّ قَالَ‏:‏ إِنِّي سَمَّيْتُهُمْ بِأَسْمَاءِ وَلَدِ هَارُونَ‏:‏ شِبْرٌ، وَشَبِيرٌ، وَمُشَبِّرٌ‏.‏

حدثنا أبو نعيم، عن إسرائيل، عن أبي إسحاق، عن هانئ بن هانئ، عن علي رضي الله عنه قال‏:‏ لما ولد الحسن رضي الله عنه سميته‏:‏ حربا، فجاء النبي صلى الله عليه وسلم فقال‏:‏ أروني ابني، ما سميتموه‏؟‏ قلنا‏:‏ حربا، قال‏:‏ بل هو حسن‏.‏ فلما ولد الحسين رضي الله عنه سميته حربا، فجاء النبي صلى الله عليه وسلم فقال‏:‏ أروني ابني، ما سميتموه‏؟‏ قلنا‏:‏ حربا، قال‏:‏ بل هو حسين‏.‏ فلما ولد الثالث سميته‏:‏ حربا، فجاء النبي صلى الله عليه وسلم فقال‏:‏ أروني ابني، ما سميتموه‏؟‏ قلنا‏:‏ حربا، قال‏:‏ بل هو محسن، ثم قال‏:‏ إني سميتهم بأسماء ولد هارون‏:‏ شبر، وشبير، ومشبر‏.‏


'Ali said, "When al-Husayn was born, I named him Harb (war). The Prophet came and said, 'Show me your son. What have you named him?' 'Harb,' we replied. He said, "He is Hasan.' When al-Husayn was born, I named him Harb. The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, came and said, 'Show me your son. What have you named him?' 'Harb,' we replied. He said, "He is Husayn.' When we had a third son, I named him Harb. The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, came and said, 'Show me your son. What have you named him?' 'Harb,' we replied. He said, "He is Muhassin." Then he said, 'I have named them according to the names of the sons of Harun:
Shabr, Shubayr, and Mushabbir.'"


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৩- গুরাব (কাক) নামের পরিবর্তন।

৮৩১। রায়েতা বিনতে মুসলিম (রহঃ) থেকে তার পিতার সূত্রে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর সাথে হুনায়ন যুদ্ধে শরীক ছিলাম। তিনি আমাকে জিজ্ঞেস করেনঃ তোমার নাম কি? আমি বললাম, গুরাব (কাক)। তিনি বলেনঃ না, বরং তোমার নাম মুসলিম। (আবু দাউদ, তারীখুল কাবীর)

بَابُ غُرَابٍ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ سِنَانٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عَبْدُ اللهِ بْنُ الْحَارِثِ بْنِ أَبْزَى قَالَ‏:‏ حَدَّثَتْنِي أُمِّي رَائِطَةُ بِنْتُ مُسْلِمٍ، عَنْ أَبِيهَا قَالَ‏:‏ شَهِدْتُ مَعَ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم حُنَيْنًا، فَقَالَ لِي‏:‏ مَا اسْمُكَ‏؟‏ قُلْتُ‏:‏ غُرَابٌ، قَالَ‏:‏ لا، بَلِ اسْمُكَ مُسْلِمٌ‏.‏

حدثنا محمد بن سنان، قال‏:‏ حدثنا عبد الله بن الحارث بن أبزى قال‏:‏ حدثتني أمي رائطة بنت مسلم، عن أبيها قال‏:‏ شهدت مع النبي صلى الله عليه وسلم حنينا، فقال لي‏:‏ ما اسمك‏؟‏ قلت‏:‏ غراب، قال‏:‏ لا، بل اسمك مسلم‏.‏


It is reported that al-Harith ibn Abza said, "I was present at Hunayn with the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, and he asked me, 'What is your name?' 'Ghurab,' I replied. He said, 'No, your name is Muslim.'"


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৪- শিহাব নামের পরিবর্তন।

৮৩২। আয়েশা (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর সামনে শিহাব নামক এক ব্যক্তির প্রসঙ্গ উঠলো। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ বরং তুমি হিশাম (দানশীল)। (আবু দাউদ)

بَابُ شِهَابٍ

حَدَّثَنَا عَمْرُو بْنُ مَرْزُوقٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عِمْرَانُ الْقَطَّانُ، عَنْ قَتَادَةَ، عَنْ زُرَارَةَ بْنِ أَوْفَى، عَنْ سَعْدِ بْنِ هِشَامٍ، عَنْ عَائِشَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا، ذُكِرَ عِنْدَ رَسُولِ اللهِ صلى الله عليه وسلم رَجُلٌ يُقَالُ لَهُ‏:‏ شِهَابٌ، فَقَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم‏:‏ بَلْ أَنْتَ هِشَامٌ‏.‏

حدثنا عمرو بن مرزوق، قال‏:‏ حدثنا عمران القطان، عن قتادة، عن زرارة بن أوفى، عن سعد بن هشام، عن عائشة رضي الله عنها، ذكر عند رسول الله صلى الله عليه وسلم رجل يقال له‏:‏ شهاب، فقال رسول الله صلى الله عليه وسلم‏:‏ بل أنت هشام‏.‏


'A'isha said, "A man called Shihab (flame) was mentioned in the presence of the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace. The Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, 'Rather you are Hisham.'"


হাদিসের মানঃ হাসান (Hasan)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৫- আস (অবাধ্য) নাম পরিবর্তন করা।

৮৩৩। আবদুল্লাহ ইবনে মুতী (রহঃ) বলেন, আমি মুতী (রাঃ) কে বলতে শুনেছি, আমি মক্কা বিজয়ের দিন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে বলতে শুনেছিঃ আজকের পর থেকে কিয়ামত পর্যন্ত কোন কুরাইশ বংশীয় লোককে (চাঁদমারির) লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে হত্যা করা যাবে না। কুরাইশের ‘আস’ নামীয়দের মধ্যে মুতী ছাড়া আর কেউ ইসলাম গ্রহণ করেনি। তার নামও ছিল আস (অবাধ্য)। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার নাম রাখেন মুতী (বাধ্য)। (মুসলিম, দারিমী, তাহাবী)

بَابُ الْعَاصِ

حَدَّثَنَا مُسَدَّدٌ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا يَحْيَى بْنُ سَعِيدٍ، عَنْ زَكَرِيَّا قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي عَامِرٌ، عَنْ عَبْدِ اللهِ بْنِ مُطِيعٍ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ مُطِيعًا يَقُولُ‏:‏ سَمِعْتُ النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم يَقُولُ، يَوْمَ فَتْحِ مَكَّةَ‏:‏ لاَ يُقْتَلُ قُرَشِيٌّ صَبْرًا بَعْدَ الْيَوْمِ إِلَى يَوْمِ الْقِيَامَةِ، فَلَمْ يُدْرِكِ الإِسْلاَمَ أَحَدٌ مِنْ عُصَاةِ قُرَيْشٍ غَيْرُ مُطِيعٍ، كَانَ اسْمُهُ الْعَاصَ فَسَمَّاهُ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم مُطِيعًا‏.‏

حدثنا مسدد، قال‏:‏ حدثنا يحيى بن سعيد، عن زكريا قال‏:‏ حدثني عامر، عن عبد الله بن مطيع قال‏:‏ سمعت مطيعا يقول‏:‏ سمعت النبي صلى الله عليه وسلم يقول، يوم فتح مكة‏:‏ لا يقتل قرشي صبرا بعد اليوم إلى يوم القيامة، فلم يدرك الإسلام أحد من عصاة قريش غير مطيع، كان اسمه العاص فسماه النبي صلى الله عليه وسلم مطيعا‏.‏


Muti' said, "I heard the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, say on the day of the Conquest of Makka, 'No Qurayshi will be killed in custody from today until the Day of Rising.'" None of the rebels of Quraysh except Muti' became Muslim. His name had been al-'As and the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, renamed him Muti' (obedient).


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৬- কেউ নিজ সংগীকে তার নাম সংক্ষিপ্ত করে ডাকতে পারে।

৮৩৪। আয়েশা (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে বললেনঃ হে আইশ! ইনি হচ্ছেন জিবরীল (আঃ)। তিনি তোমাকে সালাম বলেছেন। তিনি বলেন, তার প্রতিও সালাম এবং আল্লাহর রহমত বর্ষিত হোক। আয়েশা (রাঃ) বলেন, তিনি দেখতে পান যা আমি দেখি না। (বুখারী, মুসলিম, আবু দাউদ, তিরমিযী, নাসাঈ, ইবনে মাজাহ)

بَابُ مَنْ دَعَا صَاحِبَهُ فَيَخْتَصِرُ وَيَنْقُصُ مِنَ اسْمِهِ شَيْئًا

حَدَّثَنَا أَبُو الْيَمَانِ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا شُعَيْبٌ، عَنِ الزُّهْرِيِّ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي أَبُو سَلَمَةَ، أَنَّ عَائِشَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا قَالَتْ‏:‏ قَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم‏:‏ يَا عَائِشُ، هَذَا جِبْرِيلُ يَقْرَأُ عَلَيْكِ السَّلاَمَ، قَالَتْ‏:‏ وَعَلَيْهِ السَّلاَمُ وَرَحْمَةُ اللهِ وَبَرَكَاتُهُ، قَالَتْ‏:‏ وَهُوَ يَرَى مَا لا أَرَى‏.‏

حدثنا أبو اليمان، قال‏:‏ حدثنا شعيب، عن الزهري قال‏:‏ حدثني أبو سلمة، أن عائشة رضي الله عنها قالت‏:‏ قال رسول الله صلى الله عليه وسلم‏:‏ يا عائش، هذا جبريل يقرأ عليك السلام، قالت‏:‏ وعليه السلام ورحمة الله وبركاته، قالت‏:‏ وهو يرى ما لا أرى‏.‏


'A'isha said that the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, "'A'ish! Jibril sends you greetings." She said, "And peace be upon him and the mercy of Allah." She remarked, "He sees what I do not see."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৬- কেউ নিজ সংগীকে তার নাম সংক্ষিপ্ত করে ডাকতে পারে।

৮৩৫। উম্মে কুলসুম বিনতে ছুমামা (রহঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি হজ্জ উপলক্ষে (বসরা থেকে মদীনা) আসেন। তার ভাই মুখারিক ইবনে ছুমামা (রহঃ) বলেন, আপনি আয়েশা (রাঃ) এর নিকট উপস্থিত হয়ে তাকে উসমান ইবনে আফফান (রাঃ) সম্পর্কে জিজ্ঞেস করুন। কেননা বহু লোক তার সম্পর্কে আমাদের কাছে নানা কথা বলে। উম্মে কুলসুম (রহঃ) বলেন, আমি তার নিকট উপস্থিত হয়ে বললাম, আপনার কোন এক সন্তান আপনাকে সালাম জানিয়েছে এবং উসমান ইবনে আফফান (রাঃ) সম্পর্কে আপনাকে জিজ্ঞেস করেছে। তিনি বলেন, ওয়া আলাইহিস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ (তার উপর শান্তি এবং আল্লাহর রহমত বর্ষিত হোক)। তিনি বলেন, শোনো! আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আমি উসমান (রাঃ) এবং আল্লাহর নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে এই ঘরের মধ্যেই এই গরমের রাতে একত্রে দেখেছি। জিবরীল (আঃ) তখন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর উপর ওহী নাযিল করেন। পরে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম উসমান (রাঃ)-এর হাতে অথবা কাঁধের উপর চপেটাঘাত করে বলেনঃ লিখে নাও হে উসম! আল্লাহ তাআলা কারো প্রতি সদয় না হলে তার নবীর পক্ষ থেকে এমন মর্যাদা তাকে দেন না। সুতরাং যে উসমান (রাঃ) কে গালি দেয় তার প্রতি আল্লাহর গযব। (আহমাদ)

بَابُ مَنْ دَعَا صَاحِبَهُ فَيَخْتَصِرُ وَيَنْقُصُ مِنَ اسْمِهِ شَيْئًا

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ عُقْبَةَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ إِبْرَاهِيمَ الْيَشْكُرِيُّ الْبَصْرِيُّ قَالَ‏:‏ حَدَّثَتْنِي جَدَّتِي أُمُّ كُلْثُومٍ بِنْتُ ثُمَامَةَ، أَنَّهَا قَدِمَتْ حَاجَّةً، فَإِنَّ أَخَاهَا الْمُخَارِقَ بْنَ ثُمَامَةَ قَالَ‏:‏ ادْخُلِي عَلَى عَائِشَةَ، وَسَلِيهَا عَنْ عُثْمَانَ بْنِ عَفَّانَ، فَإِنَّ النَّاسَ قَدْ أَكْثَرُوا فِيهِ عِنْدَنَا، قَالَتْ‏:‏ فَدَخَلْتُ عَلَيْهَا فَقُلْتُ‏:‏ بَعْضُ بَنِيكِ يُقْرِئُكِ السَّلاَمَ، وَيَسْأَلُكِ عَنْ عُثْمَانَ بْنِ عَفَّانَ، قَالَتْ‏:‏ وَعَلَيْهِ السَّلاَمُ وَرَحْمَةُ اللهِ، قَالَتْ‏:‏ أَمَّا أَنَا فَأَشْهَدُ عَلَى أَنِّي رَأَيْتُ عُثْمَانَ فِي هَذَا الْبَيْتِ فِي لَيْلَةٍ قَائِظَةٍ، وَنَبِيُّ اللهِ صلى الله عليه وسلم وَجِبْرِيلُ يُوحِي إِلَيْهِ، وَالنَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم يَضْرِبُ كَفَّ، أَوْ كَتِفَ، ابْنِ عَفَّانَ بِيَدِهِ‏:‏ اكْتُبْ، عُثْمُ، فَمَا كَانَ اللَّهُ يُنْزِلُ تِلْكَ الْمَنْزِلَةَ مِنْ نَبِيِّهِ صلى الله عليه وسلم إِلاَّ رَجُلاً عَلَيْهِ كَرِيمًا، فَمَنْ سَبَّ ابْنَ عَفَّانَ فَعَلَيْهِ لَعْنَةُ اللهِ‏.‏

حدثنا محمد بن عقبة، قال‏:‏ حدثنا محمد بن إبراهيم اليشكري البصري قال‏:‏ حدثتني جدتي أم كلثوم بنت ثمامة، أنها قدمت حاجة، فإن أخاها المخارق بن ثمامة قال‏:‏ ادخلي على عائشة، وسليها عن عثمان بن عفان، فإن الناس قد أكثروا فيه عندنا، قالت‏:‏ فدخلت عليها فقلت‏:‏ بعض بنيك يقرئك السلام، ويسألك عن عثمان بن عفان، قالت‏:‏ وعليه السلام ورحمة الله، قالت‏:‏ أما أنا فأشهد على أني رأيت عثمان في هذا البيت في ليلة قائظة، ونبي الله صلى الله عليه وسلم وجبريل يوحي إليه، والنبي صلى الله عليه وسلم يضرب كف، أو كتف، ابن عفان بيده‏:‏ اكتب، عثم، فما كان الله ينزل تلك المنزلة من نبيه صلى الله عليه وسلم إلا رجلا عليه كريما، فمن سب ابن عفان فعليه لعنة الله‏.‏


Umm Kulthum, the daughter of Thumama, related that she went out to answer a call of nature,. Her brother, al-Makhariq ibn Thumama, said, "Go to 'A'isha and ask her about 'Uthman ibn 'Affan. People have said a lot about him. She said, "I went to her and said, 'One of your brothers sends you greetings and asks you about 'Uthman ibn 'Affan.' 'A'isha said, 'Peace be upon and the mercy of Allah.' 'A'isha then went on, 'I testify that I saw 'Uthman in this house one hot night when the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, had received revelation through Jibril. The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, struck the palm - or held the hand - of Ibn 'Affan, saying, 'Write, 'Uthma! Allah has placed in this house with His Prophet, may Allah bless him and grant him peace, only a man who is honoured with Him. If anyone curses Ibn 'Affan, the curse of Allah is on him.'"


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৭- জাহম নাম রাখা।

৮৩৬। বশীর ইবনে নাহীক (রাঃ) বলেন, আমি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর নিকট নীত হলে তিনি জিজ্ঞেস করেনঃ তোমার নাম কি? তিনি বলেন, জাহম। তিনি বলেনঃ বরং তোমার নাম বশীর। একদা আমি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর সাথে যাচ্ছিলাম। তিনি বলেনঃ হে খাসাসিয়ার পুত্ৰ! তোমার কি হলো যে, তুমি আল্লাহর কাজে দোষ খুঁজে বেড়াও? আর সেজন্যই তুমি কি আল্লাহর রাসূলের পিছনে লেগেছো? আমি বললাম, আপনার জন্য আমার পিতা-মাতা কোরবান হোক। আমি আল্লাহর কাজে দোষ খুঁজি না। আমি সর্বপ্রকার কল্যাণ লাভ করেছি। অতঃপর তিনি মুশরিকদের কবরস্থানে পৌঁছে বলেনঃ এরা প্রভূত কল্যাণ হারিয়েছে। অতঃপর তিনি মুসলিমদের কবরস্থানে পৌঁছে বলেনঃ এরা প্রভূত কল্যাণ লাভ করেছে। এই সময় চপ্পল পরিহিত এক ব্যক্তি কবরস্থানের উপর দিয়ে যাচ্ছিলো। রাসূলুল্লাহ। সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ হে চপ্পল পরিহিত! তোমার চপ্পলজোড়া খুলে ফেলে দাও। অতএব সে তার চপ্পলজোড়া খুলে ফেলে দিলো। (আবু দাউদ, নাসাঈ, ইবনে মাজাহ, আহমাদ হাঃ ৭৮০ নং-ও দ্র.)

بَابُ زَحْمٍ

حَدَّثَنَا سُلَيْمَانُ بْنُ حَرْبٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا الأَسْوَدُ بْنُ شَيْبَانَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا خَالِدُ بْنُ سُمَيْرٍ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي بَشِيرُ بْنُ نَهِيكٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا بَشِيرٌ قَالَ‏:‏ أَتَى النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم، فَقَالَ‏:‏ مَا اسْمُكَ‏؟‏ قَالَ‏:‏ زَحْمٌ، قَالَ‏:‏ بَلْ أَنْتَ بَشِيرٌ، فَبَيْنَمَا أَنَا أُمَاشِي النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم، فَقَالَ‏:‏ يَا ابْنَ الْخَصَاصِيَةِ، مَا أَصْبَحْتَ تَنْقِمُ عَلَى اللهِ‏؟‏ أَصْبَحْتَ تُمَاشِي رَسُولَ اللهِ صلى الله عليه وسلم، قُلْتُ‏:‏ بِأَبِي وَأُمِّي، مَا أَنْقِمُ عَلَى اللهِ شَيْئًا، كُلَّ خَيْرٍ قَدْ أَصَبْتُ‏.‏ فَأَتَى عَلَى قُبُورِ الْمُشْرِكِينَ فَقَالَ‏:‏ لَقَدْ سَبَقَ هَؤُلاَءِ خَيْرًا كَثِيرًا، ثُمَّ أَتَى عَلَى قُبُورِ الْمُسْلِمِينَ فَقَالَ‏:‏ لَقَدْ أَدْرَكَ هَؤُلاَءِ خَيْرًا كَثِيرًا، فَإِذَا رَجُلٌ عَلَيْهِ سِبْتِيَّتَانِ يَمْشِي بَيْنَ الْقُبُورِ، فَقَالَ‏:‏ يَا صَاحِبَ السِّبْتِيَّتَيْنِ، أَلْقِ سِبْتِيَّتَكَ، فَخَلَعَ نَعْلَيْهِ‏.‏

حدثنا سليمان بن حرب، قال‏:‏ حدثنا الأسود بن شيبان، قال‏:‏ حدثنا خالد بن سمير قال‏:‏ حدثني بشير بن نهيك، قال‏:‏ حدثنا بشير قال‏:‏ أتى النبي صلى الله عليه وسلم، فقال‏:‏ ما اسمك‏؟‏ قال‏:‏ زحم، قال‏:‏ بل أنت بشير، فبينما أنا أماشي النبي صلى الله عليه وسلم، فقال‏:‏ يا ابن الخصاصية، ما أصبحت تنقم على الله‏؟‏ أصبحت تماشي رسول الله صلى الله عليه وسلم، قلت‏:‏ بأبي وأمي، ما أنقم على الله شيئا، كل خير قد أصبت‏.‏ فأتى على قبور المشركين فقال‏:‏ لقد سبق هؤلاء خيرا كثيرا، ثم أتى على قبور المسلمين فقال‏:‏ لقد أدرك هؤلاء خيرا كثيرا، فإذا رجل عليه سبتيتان يمشي بين القبور، فقال‏:‏ يا صاحب السبتيتين، ألق سبتيتك، فخلع نعليه‏.‏


Bashir ibn Nuhayk said, "The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, came and said, 'What is your name?' 'Zahm,' I said. He said, 'You are Bashir (bringer of good news).' While I was walking and keeping pace with the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, he said, 'Ibn al-Khasasiyya! Are you resentful towards Allah? Do you keep pace with the Messenger of Allah?' I said, 'May my mother and father be your ransom, I do not hold any resentment against Allah. I have every blessing.' The Prophet came to the graves of the idolaters and said, 'These people have missed a lot of good. Then he came to the graves of the Muslims and said, 'These people have obtained much good.' There was a man wearing ox-hide sandals walking between the graves. The Prophet said, 'You with the ox-hide sandals! Remove your sandals!' So he removed his sandals."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৭- জাহম নাম রাখা।

৮৩৭। বশীর ইবনুল খাসাসিয়া (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তার নাম ছিল যাহম। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার নাম রাখেন বশীর।

بَابُ زَحْمٍ

حَدَّثَنَا سَعِيدُ بْنُ مَنْصُورٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عُبَيْدُ اللهِ بْنُ إِيَادٍ، عَنْ أَبِيهِ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ لَيْلَى امْرَأَةَ بَشِيرٍ تُحَدِّثُ، عَنْ بَشِيرِ ابْنِ الْخَصَاصِيَةِ، وَكَانَ اسْمُهُ زَحْمًا، فَسَمَّاهُ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم بَشِيرًا‏.‏

حدثنا سعيد بن منصور، قال‏:‏ حدثنا عبيد الله بن إياد، عن أبيه قال‏:‏ سمعت ليلى امرأة بشير تحدث، عن بشير ابن الخصاصية، وكان اسمه زحما، فسماه النبي صلى الله عليه وسلم بشيرا‏.‏


Part of previous hadith.


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৮- "বাররা" নাম।

৮৩৮। ইবনে আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত। উম্মুল মুমিনীন জুয়াইরিয়া (রাঃ)-এর নাম ছিল বাররা। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার নাম রাখেন জুয়াইরিয়া। (মুসলিম, আবু দাউদ, আহমাদ, আবু আওয়ানা, ইবনে হিব্বান)

بَابُ بَرَّةَ

حَدَّثَنَا قَبِيصَةُ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا سُفْيَانُ، عَنْ مُحَمَّدِ بْنِ عَبْدِ الرَّحْمَنِ مَوْلَى آلِ طَلْحَةَ، عَنْ كُرَيْبٍ، عَنِ ابْنِ عَبَّاسٍ، أَنَّ اسْمَ جُوَيْرِيَةَ كَانَ بَرَّةَ، فَسَمَّاهَا النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم جُوَيْرِيَةَ‏.‏

حدثنا قبيصة، قال‏:‏ حدثنا سفيان، عن محمد بن عبد الرحمن مولى آل طلحة، عن كريب، عن ابن عباس، أن اسم جويرية كان برة، فسماها النبي صلى الله عليه وسلم جويرية‏.‏


Ibn 'Abbas said that Juwayriyya's name had been Barra and the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, had renamed her Juwayriyya.


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৮- "বাররা" নাম।

৮৩৯। আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন, মায়মূনা (রাঃ) এর নাম ছিল বাররা। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার নাম রাখেন মায়মূনা।

بَابُ بَرَّةَ

حَدَّثَنَا عَمْرُو بْنُ مَرْزُوقٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا شُعْبَةُ، عَنْ عَطَاءِ بْنِ أَبِي مَيْمُونَةَ، عَنْ أَبِي رَافِعٍ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ قَالَ‏:‏ كَانَ اسْمُ مَيْمُونَةَ بَرَّةَ، فَسَمَّاهَا النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم مَيْمُونَةَ‏.‏

حدثنا عمرو بن مرزوق، قال‏:‏ حدثنا شعبة، عن عطاء بن أبي ميمونة، عن أبي رافع، عن أبي هريرة قال‏:‏ كان اسم ميمونة برة، فسماها النبي صلى الله عليه وسلم ميمونة‏.‏


Abu Hurayra said, "Maymuna's name was Barra and then the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, renamed her Maymuna."


হাদিসের মানঃ শা'জ
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন

পরিচ্ছেদঃ ৩৬৯- আফলাহ নাম।

৮৪০। জাবের (রাঃ) থেকে বর্ণিত। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ আমি যদি জীবিত থাকি তবে ইনশাআল্লাহ আমার উম্মাতকে নিষেধ করবো যে, তাদের কেউ যেন বরকত, নাফে, আফলাহ ইত্যাদি নাম না রাখে। রাবী বলেন, তিনি রাফে নামের কথাও বলেছেন কিনা তা আমার স্মরণ নাই। হয় তো বলা হবে, এখানে বরকত আছে কি? জবাবে বলা হবে, না, এখানে নাই। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইন্তিকাল করেন, কিন্তু এসব নাম রাখতে নিষেধ করেননি। (আবু দাউদ)

بَابُ أَفْلَحَ

حَدَّثَنَا عُمَرُ بْنُ حَفْصٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبِي، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا الأَعْمَشُ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو سُفْيَانَ، عَنْ جَابِرٍ، عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم قَالَ‏:‏ إِنْ عِشْتُ نَهَيْتُ أُمَّتِي، إِنْ شَاءَ اللَّهُ، أَنْ يُسَمِّي أَحَدُهُمْ بَرَكَةَ، وَنَافِعًا، وَأَفْلَحَ، وَلاَ أَدْرِي قَالَ‏:‏ رَافِعًا أَمْ لاَ‏؟‏، يُقَالُ‏:‏ هَا هُنَا بَرَكَةُ‏؟‏ فَيُقَالُ‏:‏ لَيْسَ هَا هُنَا، فَقُبِضَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم وَلَمْ يَنْهَ عَنْ ذَلِكَ‏.‏

حدثنا عمر بن حفص، قال‏:‏ حدثنا أبي، قال‏:‏ حدثنا الأعمش، قال‏:‏ حدثنا أبو سفيان، عن جابر، عن النبي صلى الله عليه وسلم قال‏:‏ إن عشت نهيت أمتي، إن شاء الله، أن يسمي أحدهم بركة، ونافعا، وأفلح، ولا أدري قال‏:‏ رافعا أم لا‏؟‏، يقال‏:‏ ها هنا بركة‏؟‏ فيقال‏:‏ ليس ها هنا، فقبض النبي صلى الله عليه وسلم ولم ينه عن ذلك‏.‏


Jabir reported:
"The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, said, 'If I will, I will prohibit my community, if Allah so wills, from any of them taking the name Baraka (blessing), Nafi' (Helper) or Aflah (Most Successful),' and I do not know if he said, Rafi' (one who elevates) or not. Someone asks, 'Is Baraka (blessing) here?' and is told, 'He (or it) is not here.' The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, died because he could forbid that (using those names)."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
অর্থপূর্ণ নাম রাখা এবং কদর্য নাম পরিবর্তন
দেখানো হচ্ছেঃ থেকে ২০ পর্যন্ত, সর্বমোট ৪৩ টি রেকর্ডের মধ্য থেকে পাতা নাম্বারঃ 1 2 3 পরের পাতা »