• ৭১৪৬৩ টি সর্বমোট হাদিস আছেঃ
  • ৮০৩৩ টি প্রশ্নোত্তর ও ফিকাহঃ

 

 

 

 


  • মুহাম্মদ মাহফুজুর রহমান শরীফ
  • 2014-04-05

আপনারা সাইটে তাফসীর ইবনে কাসীর ইউনিকোডে সংযোজন করছেন দেখে খুবই ভালো লাগলো।

এটা সত্যিই অসাধারণ এবং খুবই দরকারী ছিলো।

আশাকরি আপনাদের কাজ খুবই তারাতারি শেষ হবে।

এটাও আশাকরি যে, আপনারা অন্যান্য তাফসীরও এই একই ভাবে ইউনিকোডে নিয়ে আসবেন।

আপনাদের কাছে কোরআন সংরক্ষণের ইতিহাসও চাই।

ইংরেজী উচ্চারনের পাশাপাশি ইংরেজী অর্থ দিলেও অনেক ভালো হতো।

তাছাড়া হাদীসে যেমন সার্চ অর্ডার দেখা যায় তেমনি কিছু সুবিধা এখানেও রাখা যেতে পারে, তাহলে অনেক ভালো হয়।

হাদীসের ক্ষেত্র যেমন বাংলা, আরবী, ইংরেজী শব্দ দিয়ে খোজ করার সুবিধা রয়েছে, তেমনি ভাবে এখানেও কোরআনের আয়াত খুজার জন্য একটি অপশন রাখলে খুবই ভালো হতো।

 

তথ্য সমগ্রের মধ্যে রুকু, মন্ঞ্জিল,  juz বা পারা - এর নম্বর ইত্যদি দিলে ভালো হতো।

লিন্কঃ http://en.wikipedia.org/wiki/Juz%27

এছাড়াও তথ্য সমগ্রের মধ্যে revelation order বা অবতরন ক্রম দিলে বেশ ভালো হতো।

লিন্কঃ http://tanzil.net/wiki/Revelation_Order

লিন্কঃ http://www.missionislam.com/quran/revealationorder.htm

লিন্কঃ http://www.qran.org/q-chrono.htm

 

আচ্ছা, আপনাদের সাইটে হাদীস নিয়ে যেমনটা অফলাইন সফওয়্যার রয়েছে, যদি সম্ভব হয়ে তবে তেমনি ভাবে পেতেও আমি আগ্রহী।

আপনি হয়তো জিকর সফওয়্যারটি দেখেছেন, আপনাদের কাছেও তেমনটাই আশা করি।

জিকর সফওয়্যারটির লিন্কঃ http://zekr.org/quran/en/quran-for-windows

 


যেহেতু তাফসীর নিয়ে আমরা কাজ শুরু করেছি, ইনশাল্লাহ আস্তে আস্তে বিষয়গুলি একটি একটি করে নিয়ে আমরা কাজ করব। আপনার মতামতের জন্য জাযাকাল্লাহ।

  • ফাহিমা
  • 2014-04-03

আমার খুবই ভালো লাগছে এই ওয়েব সাইটে নিজের মতামত লিখতে পেরে। আমরা মুসলমান হয়েও সঠিক ইসলামটা জানিনা এর চেয়ে লজ্জার বিষয় আর কি হতে পারে, আমরা সঠিক কোনটা তা কখনই খুজিনা এমনকি চেষ্টাও করিনা জানার যে কোনটা সঠিক। আর যেই আমরা সঠিক হাদিস জেনে অন্যদের জানাতে যাই সেখানেই হয় যত গণ্ডগোল, কেউ বলে আমরা অহাবি আবার কেউ বলে আমরা ইসলাম ধর্মকে মিথ্যা বানিয়ে তাদের ভুল পথে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছি, তাদের একটাই দাবি- তাদের মা বাবা তাদের মক্তবের হুজুর যা শিখিয়েছে সেটাই নির্ভুল। বিজ্ঞানের কল্যাণে আজ ইন্টারনেট আমাদের হাতে হাতে, আর তাই এখন ওই সব লোকদের সামনে প্রমান স্বরূপ রাসুল (সঃ) এর সঠিক হাদিস তুলে ধরতে পারবো। তাই এই ওয়েবসাইটের সকল উদ্যোক্তা এবং সকল কর্মকর্তাদের দোয়া এবং অশেষ ধন্যবাদ জানাচ্ছি।


জাজাকাল্লাহু খায়ের আপনার মুল্যবান মন্তব্যের জন্য। আসলে আমরা ইসলামের জন্য কোরআন এবং সহিহ হাদিস বাদ দিয়ে মক্তবের হুজুর, পূর্ববর্তী মুরুব্বীদের কথাকেই বেশি প্রাধান্য দিয়েছি আর এই কারনে শিরক, কুফর এবং বিদআত আমাদের ভিতরে জেকে বসেছে। আসলে অন্ধকারকে আহবান জানাতে হয় না, যখনই আলো চলে যায় তখনি অন্ধকার আপনা আপনি চলে আসে কিন্তু আলোর জন্য আমাদেরকে মেহনত করতে হয়, কিন্তু সেটাই আমরা করি না। ঘরের বাতি নিভিয়ে দিলে অন্ধকার এমনিই চলে আসে এর জন্য কোন মেহনত করতে হয় না কিন্তু সেই অন্ধকারকে দুরিভুত করতে হলে আলোর ব্যাবস্থা করা লাগে আর এর জন্য লাইট লাগানো, বিদ্যুতের ব্যবস্থা কত কিছুই না করতে হয়, ঠিক তেমনি ইসলাম নামক আলোকে পেতে হলে, জানতে হলে বুঝতে হলে আমাদেরও পড়াশোনা করতে হবে, সহিহ দ্বীনের জ্ঞান যারা রাখেন তাদের সংস্পর্শে আসতে হবে, আর এটা নিয়ে কত জন কত কিছু বলবে কিন্ত তাদের কথা শুনে দমে গেলে চলবে না, আমাদের সকলের জানা দরকার যে ইসলাম আছে একমাত্র কোরআন এবং সহিহ হাদিসের মধ্যে আর কোন কিছুর মধ্যে নেই আর এতে সংযোজন বা বিয়োজন কোনটাই সম্ভব নয়।

রাসুল (সাঃ) এর জীবনী পড়লেই আমরা বুঝতে পারব ইসলাম প্রচারের জন্য তাকে কত অত্যাচার সহ্য করতে হয়েছে, কত জন কত কিছু বলেছে কিন্তু তিনি দমে যান নি, আল্লাহ্‌ আমাদের সকলকে সঠিক পথের সন্ধান দান করুন। আমিন।

  • helaluzzaman
  • 2014-04-01

আসসলামু আলাইকুম...

আপনাদের সাইটটি আমার কাছে দিন দিন ভালো লাগছে। আরবিগুলো পড়তে লাগলে সমস্যায় পড়ে যাই। কারণ লেখাগুলো উঁচু-নিচু বা লাইন সিকুয়েন্স ঠিক নাই। যার ফলে পড়তে গেলে অসুবিধায় পড়তে হয়। দয়া করে সমস্যাটা দূর করে বাধিত করবেন।

আমার ইচ্ছা সাপ্তাহে হোক, মাসে হোক কোনো একটা সময় আল্লাহর দ্বীনের খেদমতে আপনাদের সাথে কাজ করি। যদি সুযোগ থাকে জানাবেন। ফোন : ০১৭৫৬৯৫১৪৭৬, হেলালুজ্জামান, গ্রাফিক্স ডিজাইনার।


ওয়ালাইকুম আস-সালাম, যদি আপনার সমস্যাটি একটু বিস্তারিত বলতেন তাহলে সুবিধা হত। একটি ছবি তুলে পাঠিয়ে দিন আমাদের ইমেইল ঠিকানায়। জাজাকাল্লাহু খায়ের।

  • helaluzzaman
  • 2014-03-30

Khub bhalo padakkhep. Bar bar parte iccha kore. Tawhid publication er sab gulo hadith boi aro dhroto update kora darkar amra allah'r sahajjo kamona kari. helaluzzaman


জাজাকাল্লাহু খায়ের আপনার মন্তব্যের জন্য। ইনশাআল্লাহ আমরা আমাদের সাধ্যমত চেষ্টা করব যত দ্রুত সম্ভব কাজগুলি শেষ করার জন্য।

  • মোহাম্মদ মুরাদ হোসেন
  • 2014-03-29

আসসালামুআলাইকুম। ভাই গত সপ্তাহে প্রশ্নোত্তর পেজ সম্পূর্ন ফিলআপ করে আমি দুইবারে মোট পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন সেন্ড করেছি। কিন্তু একটিও পাবলিশ করা হয়নি বা উত্তর দেওয়া হয়নি। কারনটা জানতে চাচ্ছি।

ওয়ালাইকুম আস-সালাম, ভাই যে সমস্ত শায়েখগন প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন উনারা বেশীরভাগ দেশের বাইরে থাকেন এবং প্রচুর ব্যাস্ততার ভিতরেও উনারা আমাদেরকে সময় দেন। তাই আমাদের পক্ষে বলা সম্ভব নয় কখন উত্তর দেয়া সম্ভব হবে। আর যদি একসাথে বেশি প্রশ্ন করেন সে ক্ষেত্রে উত্তর পেতে অনেক দেরি হবে এবং প্রশ্নের ধরনের উপরও উত্তরের আগে বা পরে হয়ে থাকে। আশা করি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন।

  • মো: আসাদুজ্জামান
  • 2014-03-26

ওয়েবসাইটটি অনেক তথ্য সমৃদ্ধ, প্রথম দেখাতে আমার খুব ভাল লেগেছে। যে কেউ খুব সহজে ইসলামের না জানা অনেক তথ্য এখান থেকে পেতে পারবেন। যে বা যারা এই মহতি উদ্যোগ নিয়েছেন তাদের জন্য মহান রাব্বুল আলামীনের কাছে অনেক অনেক শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। আমিন।


জাজাকাল্লাহু খায়ের আপনার মন্তব্যের জন্য। আমাদের জন্য আল্লাহর কাছে দু'আ করবেন যেন তিনি এই কাজকে কবুল করেন এবং এর উসিলায় পরকালে বিনা হিসাবে নাজাদের ব্যাবস্থা করেন।

  • আহমেদ রাসেল
  • 2014-03-26

আপনাদের অসংখ ধন্যবাদ আপনাদের এই ওয়েব সাইটের মাধ্যমে ইসলাম সম্পর্কে অনেক কিছু জানার সুযোগ করে দিয়ছেন বলে। যিনি আমাদের প্রশ্নের উত্তর দেন তাঁর সম্পর্কে জানতে চাই।

জাজাকাল্লাহু খায়ের আপনার মন্তব্যের জন্য। এই সাইটে বেশ কয়েকজন শায়েখ প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন, উনারা কেউ কেউ মদিনা থাকেন, কেউবা আমেরিকা এবং কেউবা ইউকে।

  • বক্কার
  • 2014-03-26

আসলামুআলাইকুম ভাইয়া

প্রথমে আপনাকে ধন্যবাদ জানাই আমার প্রশ্নের জন্য।

এখন আমার আরো দুইটা প্রশ্ন আছে উত্তর পেলে খুশি হব।

প্রশ্ন নং ১। এমন যদি হয় স্বামী এবং স্ত্রী কোন এক জায়গায় বেরাতে গেল যেখানে যেতে গিয়ে তাদের খাবার পানি শেষ হয়ে গেল এবং স্বামী অসুস্থ হয়ে পড়ল খাবার পানি নেই এমতাবস্থায় কি স্ত্রী তার বুকের দুধ স্বামীকে পান করাতে পারবে? শরিয়তে এর বিধান কি? কিংবা সে যদি নিজেও পান করতে চায় তার ই বা বিধান কি ইসলামে?

প্রশ্ন নং ২। কোন স্বামী যদি তার স্ত্রীর বুকের দুধ পান করে ইচ্ছাকৃত বা অন-ইচ্ছাকৃত তাহলে তার বিধান ই বা কি ইসলামে? কোন স্বামী যদি তার স্ত্রীর বুকের দুধ পান করতে চায় তা হলে সে কি তা পান করতে পারবে এ বিষয়ে ইসলামে বিধান কি?

প্রশ্ন দুইটার উত্তর পেলে খুশি হব।


ওয়ালাইকুম আস-সালাম, প্রথমত আপনি কমেন্টের পাতায় প্রশ্ন করেছেন আর দ্বিতীয়ত আপনার প্রশ্নগুলি এমন ধরনের যার ভিতরে আসলে ইসলামী শরীয়তের মাসআলা জানতে চাওয়ার উদ্দেশ্য বোঝা যায় না।

  • মো : গোলাম সারোয়ার জালাল
  • 2014-03-25

ইংরেজী আর্টিকেল সফটওয়ারটি কাজ করছে না ডাউনলোড করার পর। একটু দেখবেন।

 


আপনি দয়া করে rub_sanjida@yahoo.com ইমেইলে একটু যোগাযোগ করুন এই বিষয়টি নিয়ে। জাজাকাল্লাহু খায়ের।

  • সাইফুল ইসলাম
  • 2014-03-25

আপনার এই পোস্টটির প্রতি ওলামায়ে দেওবন্দ এর সম্মতি আছে কিনা, জানালে খুশি হব।

 


আপনি কোন পোস্টটির বিষয়ে বলতে চাইছেন আমাদের কাছে তা স্পষ্ট নয়। আর ইসলামের মুল ভিত্তি বা মানদণ্ড আল-কোরআন এবং সহিহ হাদিস। কোন ব্যাক্তি, গোষ্ঠী, দল, ফিরকা ইত্যাদি ইসলামের কোন মানদণ্ড নয়।

দেখানো হচ্ছেঃ  101 থেকে  110 পর্যন্ত এবং সর্বমোট আছে 276  টি কমেন্ট।

PAGE: 11 OF 28
প্রতি পাতাতে   টি কমেন্ট