Donate Now
কীবোর্ড সিলেক্টরঃ ফনেটিক বিজয় ইউনিজয়   ইংরেজী
হাদিস প্রশ্নোত্তর/দু'আ/গ্রন্থ প্রশ্নোত্তর (বাংলা হাদিস) গুগল হুবুহু সার্চ
 
 
Donate Now!
Google Play

Google App Google Play

প্রশ্নঃ

nobiji(s) kisar toire ?

উত্তরঃ

বিসমিল্লাহ ওয়াস-সালাতু ওয়াস-সালামু আলা রসূলিল্লাহ ওয়া বা'দ।

নবী করীম (সল্লাল্লাহু আলায়হি ওয়া-সাল্লাম) মানুষ এবং তিনি আদমের বংশধর। তিনি (সঃ) বলেছেনঃ

أَنَا سَيِّدُ وَلَدِ آدَمَ وَلا فَخْرَ

"আমি আদম সন্তানদের মধ্যে সাইয়েদ [উচ্চ বংশীয়], কিন্তু এতে কোন অহংকার নেই" [তিরমিজী ও অন্যান্যরা সংকলন করেছেন এবং আলবানী এটাকে সহীহ বলেছেন]।

আল্লাহ তা'আলা আদমকে (আঃ) মাটি থেকে তৈরি করেছেন, নূর থেকে নয়। আল্লাহ তা'আলা বলেছেন:

إِنَّ مَثَلَ عِيسَىٰ عِندَ اللَّـهِ كَمَثَلِ آدَمَ ۖ خَلَقَهُ مِن تُرَ‌ابٍ ثُمَّ قَالَ لَهُ كُن فَيَكُونُ

"নিঃসন্দেহে আল্লাহর নিকট ঈসার দৃষ্টান্ত হচ্ছে আদমেরই মতো। তিনি তাকে মাটি দিয়ে তৈরী করেছিলেন এবং তারপর তাকে বলেছিলেন হয়ে যাও, সঙ্গে সঙ্গে হয়ে গেলেন। " [৩ঃ৫৯]

আদমের বংশধররাও স্বাভাবিকভাবে তাঁর মতই। আদমের বংশধররা নতুন কোন উপাদানে তৈরি না। এজন্য রসূলুল্লাহ (সঃ) ও মাটির তৈরি। আল্লাহ তা'আলা কুর'আনে রসূলুল্লাহকে (সঃ) ঘোষণা করতে বলেছেন এইভাবেঃ

قُلْ إِنَّمَا أَنَا بَشَرٌ‌ مِّثْلُكُمْ يُوحَىٰ إِلَيَّ أَنَّمَا إِلَـٰهُكُمْ إِلَـٰهٌ وَاحِدٌ ۖ فَمَن كَانَ يَرْ‌جُو لِقَاءَ رَ‌بِّهِ فَلْيَعْمَلْ عَمَلًا صَالِحًا وَلَا يُشْرِ‌كْ بِعِبَادَةِ رَ‌بِّهِ أَحَدًا

" আমি ও তোমাদের মতই একজন মানুষ; আমার প্রতি ওয়াহী করা  হয় যে, তোমাদের ইলাহই একমাত্র ইলাহ। অতএব, যে ব্যক্তি তার পালনকর্তার সাক্ষাত কামনা করে, সে যেন সৎকর্ম সম্পাদন করে এবং তার পালনকর্তার ইবাদতে কাউকে শরীক না করে।" [১৮ঃ১১০] 

قُلْ إِنَّمَا أَنَا بَشَرٌ‌ مِّثْلُكُمْ يُوحَىٰ إِلَيَّ أَنَّمَا إِلَـٰهُكُمْ إِلَـٰهٌ وَاحِدٌ فَاسْتَقِيمُوا إِلَيْهِ وَاسْتَغْفِرُ‌وهُ ۗ وَوَيْلٌ لِّلْمُشْرِ‌كِينَ

"বলুন, আমিও তোমাদের মতই মানুষ, আমার প্রতি ওহী আসে যে, তোমাদের মাবুদ একমাত্র মাবুদ, অতএব তাঁর দিকেই সোজা হয়ে থাক এবং তাঁর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা কর। আর মুশরিকদের জন্যে রয়েছে দুর্ভোগ।" [৪১ঃ৬]

তিনি আর সব আদম সন্তানের মত মানুষ; তাদেরকে যা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে রসূলুল্লাহকেও  (সঃ) তা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। অন্যান্য আদম সন্তানদের মতই তাঁর আবেগ-অনুভূতি, ক্ষুধা-তৃষ্ণা, পরিবার পরিজন ছিল। কাফেররাতো এজন্যই আশ্চর্য হত যে একজন মানুষ কীভাবে রসূল হয়ে আছে, যে তাদের মতই হাটে-বাজারে চলাফেরা করে।

وَقَالَ الْمَلَأُ مِن قَوْمِهِ الَّذِينَ كَفَرُ‌وا وَكَذَّبُوا بِلِقَاءِ الْآخِرَ‌ةِ وَأَتْرَ‌فْنَاهُمْ فِي الْحَيَاةِ الدُّنْيَا مَا هَـٰذَا إِلَّا بَشَرٌ‌ مِّثْلُكُمْ يَأْكُلُ مِمَّا تَأْكُلُونَ مِنْهُ وَيَشْرَ‌بُ مِمَّا تَشْرَ‌بُونَ

"তাঁর সম্প্রদায়ের প্রধানরা যারা কাফের ছিল, পরকালের সাক্ষাতকে মিথ্যা বলত এবং যাদেরকে আমি পার্থিব জীবনে সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য দিয়েছিলাম, তারা বললঃ এতো আমাদের মতই একজন মানুষ বৈ নয়। তোমরা যা খাও, সেও তাই খায় এবং তোমরা যা পান কর, সেও তাই পান করে।" [২৩ঃ৩৩]

وَقَالُوا مَالِ هَـٰذَا الرَّ‌سُولِ يَأْكُلُ الطَّعَامَ وَيَمْشِي فِي الْأَسْوَاقِ ۙ لَوْلَا أُنزِلَ إِلَيْهِ مَلَكٌ فَيَكُونَ مَعَهُ نَذِيرً‌ا

তারা বলে, এ কেমন রসূল যে, খাবার খায় এবং হাটে-বাজারে চলাফেরা করে? তাঁর কাছে কেন কোন ফেরেশতা নাযিল করা হল না যে, তাঁর সাথে সতর্ককারী হয়ে থাকত?   [২৫ঃ ৭]

তাদের এই কথার জবাবে আল্লাহ তা'আলা বলেন মুহাম্মদ (সঃ) এর আগেও যাদেরকে রসূল করে পাঠিয়েছিলেন তারাও মানুষ ছিলেন, তারাও খাবার খেয়েছেন, বিয়ে শাদী করেছেন, বাজারে চলাফেরা করেছেন।

وَمَا أَرْ‌سَلْنَا قَبْلَكَ مِنَ الْمُرْ‌سَلِينَ إِلَّا إِنَّهُمْ لَيَأْكُلُونَ الطَّعَامَ وَيَمْشُونَ فِي الْأَسْوَاقِ ۗ وَجَعَلْنَا بَعْضَكُمْ لِبَعْضٍ فِتْنَةً أَتَصْبِرُ‌ونَ ۗ وَكَانَ رَ‌بُّكَ بَصِيرً‌ا

আপনার পূর্বে যত রসূল প্রেরণ করেছি, তারা সবাই খাদ্য গ্রহণ করত এবং হাটে-বাজারে চলাফেরা করত। আমি তোমাদের এককে অপরের জন্যে পরীক্ষাস্বরূপ করেছি। দেখি, তোমরা সবর কর কিনা। আপনার পালনকর্তা সব কিছু দেখেন। [২৫ঃ৭০]

وَمَا أَرْ‌سَلْنَا مِن قَبْلِكَ إِلَّا رِ‌جَالًا نُّوحِي إِلَيْهِم مِّنْ أَهْلِ الْقُرَ‌ىٰ

"আপনার পূর্বে আমি যতজনকে রসূল করে পাঠিয়েছি, তারা সবাই পুরুষই ছিল জনপদবাসীদের মধ্য থেকে। আমি তাঁদের কাছে ওহী প্রেরণ করতাম।" [১২ঃ ১০৯]

وَلَقَدْ أَرْ‌سَلْنَا رُ‌سُلًا مِّن قَبْلِكَ وَجَعَلْنَا لَهُمْ أَزْوَاجًا وَذُرِّ‌يَّةً ۚ وَمَا كَانَ لِرَ‌سُولٍ أَن يَأْتِيَ بِآيَةٍ إِلَّا بِإِذْنِ اللَّـهِ ۗ لِكُلِّ أَجَلٍ كِتَابٌ

"আপনার আগেও আমি অনেক রসূল প্রেরণ করেছি এবং তাঁদেরকে স্ত্রী ও সন্তান-সন্ততি দিয়েছি। কোন রসূলের এমন সাধ্য ছিল না যে আল্লাহর নির্দেশ ছাড়া কোন নিদর্শন উপস্থিত করে। প্রত্যেকটি ওয়াদা লিখিত আছে।" [১৩ঃ৩৮]

তাই রসূলগণকে  তাদের জনগণের ভেতর থেকেই আল্লাহ মনোনীত করেছেন। মুহাম্মদ (সঃ) ও ক্বুরাইশদের ভেতর থেকে তাদেরই একজন। তিনি অভিনব কেউ ছিলেন না। তাই আল্লাহ বলেছেনঃ

هُوَ الَّذِي بَعَثَ فِي الْأُمِّيِّينَ رَ‌سُولًا مِّنْهُمْ يَتْلُو عَلَيْهِمْ آيَاتِهِ وَيُزَكِّيهِمْ وَيُعَلِّمُهُمُ الْكِتَابَ وَالْحِكْمَةَ وَإِن كَانُوا مِن قَبْلُ لَفِي ضَلَالٍ مُّبِينٍ

"তিনিই নিরক্ষরদের মধ্য থেকে একজন রসূল প্রেরণ করেছেন, যিনি তাদের কাছে পাঠ করেন তার আয়াতসমূহ, তাদেরকে পবিত্র করেন এবং শিক্ষা দেন কিতাব ও হিকমত। ইতিপূর্বে তারা ছিল ঘোর পথভ্রষ্টতায় লিপ্ত।" [৬২ঃ ২]

এজন্য রসূলুল্লাহ (সঃ) আর সব মানুষের মতই মাটির তৈরি মানুষ। আর মাটির তৈরি মানুষকে আল্লাহ নূরের তৈরি ফিরিশতাদের উপর সম্মানিত করেছেন যখন তিনি ফিরিশ্তাদেরকে আদমকে সিজদার নির্দেশ দিয়েছিলেন।

 
Type the characters you see in the picture below.