Donate Now
কীবোর্ড সিলেক্টরঃ ফনেটিক বিজয় ইউনিজয়   ইংরেজী
হাদিস প্রশ্নোত্তর/দু'আ/গ্রন্থ প্রশ্নোত্তর (বাংলা হাদিস) গুগল হুবুহু সার্চ
 
 
Donate Now!
Google Play

Google App Google Play

প্রশ্নঃ

যদি কেউ চার রাকাত নামাজের মধ্যে তিন রাকাত পরে সালাম ফিরিয়ে ফেলে এবং নামাজের শেষে মনে পরে অথবা মনে ধোকা লাগে যে নামাজ কম আদায় করা হয়েসে তখন করনীয় কি ? জানালে উপকৃত হব?

উত্তরঃ

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম

যদি কেউ চার রাকাত নামাজের মধ্যে তিন রাকাত পরে সালাম ফিরিয়ে ফেলে এবং নামাজের শেষে মনে পরে এ ক্ষেত্রে সালাম ফেরানোর পরপরই স্মরণ হলে কিংবা সামান্য পরেই মনে পড়ে তাহলে বাকী নামায পূর্ণ করে সালাম ফিরাবে। অতঃপর সাহু সিজদা করবে এবং পুনরায় সালাম ফিরাবে।

আর যদি অনেক সময় পার হওয়ার পর মনে পড়ে, তাহলে সেই নামায পুনরায় আদায় করবে।

সাহু সিজদার ক্ষেত্রে রাসূল (সাঃ)এর সুন্নাত ছিল নিম্নরূপঃ

নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে সহীহ সূত্রে বর্ণিত হয়েছে যে, তিনি বলেছেনঃ
্রإِنَّمَا أَنَا بَشَرٌ مِثْلُكُمْ أَنْسَى كَمَا تَنْسَوْنَ فَإِذَا نَسِيتُ فَذَكِّرُونِى
“আমি তোমাদের মতই একজন মানুষ। তোমরা যেমন ভুলে যাও আমিও তেমনি ভুল করি। আমি ভুলে গেলে তোমরা আমাকে স্মরণ করিয়ে দিয়ো।  নামাযে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কর্তৃক একাধিক বার ভুল করা উম্মাতের জন্য নেয়ামত স্বরূপ এবং দ্বীন পরিপূর্ণ হওয়ার প্রমাণ। যাতে তাঁর পরে উম্মতগণ ভুল করলে সংশোধনের ক্ষেত্রে সঠিক পন্থা অনুসরণ করতে পারে। 
সুতরাং তিনি একবার চার রাকআত বিশিষ্ট নামায পড়তে গিয়ে দুই রাকআত পড়ে (মাঝখানে না বসে ভুল বশতঃ) দাঁড়িয়ে গেছেন। নামায শেষে করে সালামের পূর্বে তিনি দু’টি সাহু সিজদাহ করেছেন। সুতরাং এ থেকে একটি মাসআলা পাওয়া গেল যে, কোন ব্যক্তি নামাযের রুকন ব্যতীত অন্য কোন অংশ ভুল বশতঃ ছেড়ে দিলে তার জন্য সালামের পূর্বে দু’টি সাহু সিজদাহ করতে হবে। কোন কোন বর্ণনায় এসেছে যে, রুকন ছাড়া অন্য কোন অংশ (ওয়াজিব বিষয়) ছেড়ে দিয়ে পরবর্তী রুকন পালন করা শুরু করে দিলে স্মরণ হওয়ার পর ছুটে যাওয়া ওয়াজিব পালনের দিকে পুনরায় ফিরে আসবে না। (বরং পরবর্তী রুকন পালন করা অব্যাহত রাখবে এবং সালামের পূর্বে দু’টি সাহু সিজদাহ করবে)  
তিনি একবার যোহর কিংবা আসরের নামায দুই রাকআত পড়েই সালাম ফিরিয়ে দিয়েছেন। কথাও বলেছেন। অতঃপর তিনি বাকী নামায পূর্ণ করে সালাম ফেরালেন। অতঃপর সাহু সিজদাহ করার পর পুনরায় সালাম ফেরালেন।
একবার তিনি কোন নামাযের এক রাকআত বাকী থাকতেই সালাম ফিরিয়ে চলে গেলেন। তালহা বিন উবাইদুল্লাহ্ (রাঃ) তাঁকে বললেনঃ আপনি নামাযের এক রাকআত ভুলে গেছেন। তিনি ফিরে এসে মসজিদে প্রবেশ করে বেলাল (রাঃ)কে ইকামত দিতে বললেন। বেলাল ইকামত দিলেন আর তিনি লোকদেরকে নিয়ে বাকী এক রাকআত নামায আদায় করলেন।  
একবার তিনি যোহরের নামায পাঁচ রাকআত পড়ে সালাম ফেরালেন। সাহাবীগণ তাঁকে বললেনঃ নামায কি বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে? তিনি বললেনঃ কি হয়েছে? তারা বললেনঃ আপনি পাঁচ রাকআত নামায পড়েছেন। তখন তিনি সালাম ফেরানোর পরে দু’টি সাহু সিজদা প্রদান করলেন। (অন্য বর্ণনায় আছে তিনি সাহু সিজদাহ করে পুনরায় সালাম ফিরিয়েছেন) 
তিনি একবার আসরের নামায তিন রাকআত পড়ে সালাম ফিরিয়ে বাড়িতে চলে গেলেন। লোকেরা তাঁকে স্মরণ করিয়ে দিলে তিনি বের হয়ে এসে তাদেরকে নিয়ে বাকী এক রাকআত নামায পড়লেন। অতঃপর তিনি সালাম ফেরালেন। অতঃপর দু’টি সাহু সিজদাহ প্রদান করলেন। পরিশেষে তিনি সালাম ফেরালেন। 
উপরোক্ত পাঁচটি স্থানে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে নামাযে ভুল হওয়া এবং সাহু সিজদাহ দেয়ার কথা সংরক্ষিত হয়েছে। (আল্লাহই ভাল জানেন)

 

 

 
Type the characters you see in the picture below.